ঢাকা, শুক্রবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ম্যানসিটি নয়, বায়ার্ন বিশ্বসেরা দল: গার্দিওলা

দুর্দান্ত জয়রথে এগিয়ে যাচ্ছে ম্যানচেস্টার সিটি, যা শুরু হয়েছে গত বছরের ডিসেম্বরে। ইংল্যান্ডের শীর্ষ লিগে খেলা কোনও ক্লাব হিসেবে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা জয়ের রেকর্ড ২০ ম্যাচে বাড়িয়ে নিয়েছে সিটিজেনরা। শনিবার ওয়েস্ট হ্যামের বিপক্ষে ২-১ গোলে জেতার পর প্রতিপক্ষ কোচ ডেভিড ময়েসের বক্তব্যে ইউরোপের সেরা দলের মর্যাদা পেয়েছে তারা। কিন্তু তা মানতে নারাজ ম্যানসিটি কোচ পেপ গার্দিওলা। তার মতে, বায়ার্ন মিউনিখ ইউরোপ ও বিশ্বের সেরা দল।

কদিন আগে বরুশিয়া মনশেনগ্লাদবাখের মাটিতে ২-০ গোলে চ্যাম্পিয়নস লিগ শেষ ষোলোর প্রথম লেগ জেতে ম্যানসিটি। ওই ম্যাচ জেতার পর সংবাদ সম্মেলনে গার্দিওলা বলেছিলেন, সাবেক ক্লাব বায়ার্নের খেলা দেখলে ইউরোপিয়ান মঞ্চে নিজেদের ফেভারিট মনে হয় না তার।

অথচ বেশ আধিপত্য দেখিয়ে ছুটে চলছে ম্যানসিটি। কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখে আগামী ১৬ মার্চ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে জার্মানদের স্বাগত জানাবে তারা। প্রিমিয়ার লিগে ১৫ পয়েন্টের ব্যবধানে শীর্ষে সিটিজেনরা। যে কোনও প্রতিযোগিতায় তাদের সবশেষ হার গত বছরের ২১ নভেম্বর টটেনহ্যাম হটস্পারের কাছে। গেলো ২৬ ম্যাচ ধরে ফুটবল মাঠে অজেয় থাকার পরও মাটিতে পা রাখছেন গার্দিওলা।

ম্যানসিটি কোচের চোখে গত এক বছরে ছয় শিরোপার সবগুলো জেতা বায়ার্নই বিশ্ব সেরা। আর ইংল্যান্ডের সেরা গতবারের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। গার্দিওলা বলেছেন, ‘ইউরোপ ও বিশ্বের সেরা দল বায়ার্ন মিউনিখ। কারণ তারা সবকিছু জিতেছে, তারাই সেরা। আর ইংল্যান্ডে লিভারপুল চ্যাম্পিয়ন কারণ তারা সেরা। যদি আপনি মুকুট চান তাহলে জিততে হবে আপনাকে। মার্চে কেউই চ্যাম্পিয়ন নয়। আমাদের ভালো করার চেষ্টা করতে হবে এবং জিততে হবে। কিন্তু অস্বীকার করতে পারি না যে ফলের ভিত্তিতে গত কয়েক মাস ধরে আমরা ব্যতিক্রম।’

গত ১২ মাসে বায়ার্ন বুন্দেসলিগা, চ্যাম্পিয়নস লিগ, ক্লাব বিশ্বকাপ ও উয়েফা সুপার কাপের পাশাপাশি ঘরোয়া টুর্নামেন্ট ডিএফবি পোকাল ও সুপার কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।