ঢাকা, সোমবার, ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অবশেষে ‘মুক্তি’ পেলেন মঈন আলি

দলের বাকিদের সঙ্গে একই বিমানে করে ইংল্যান্ড থেকে গিয়েছেন শ্রীলঙ্কায়। কিন্তু এরপর দলের বাকি খেলোয়াড়রা যখন একসঙ্গে কাটাচ্ছে সময়, খেলছে টেস্ট ম্যাচ; তখন একা একা আইসোলেশনে বন্দী থাকতে হয়েছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অফস্পিনিং অলরাউন্ডার মঈন আলিকে।

অবশেষে ১৩ দিন পর আইসোলেশন থেকে মুক্তি পেলেন তিনি। শনিবার যোগ দিয়েছেন ইংল্যান্ড দলের সঙ্গে। দুইবার করোনা নেগেটিভ পাওয়ার পর গল টেস্টের তৃতীয় দিনের (শনিবার) খেলা চলাকালীন বিকালের সেশনে সোজা ড্রেসিংরুমেই চলে যান মঈন।

শ্রীলঙ্কা পৌঁছেই করা প্রথম দফার করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছিলেন ৩৩ বছর বয়সী মঈন। করোনাভাইরাসের মৃদু উপসর্গও ছিল তার মাঝে। ফলে প্রাথমিকভাবে তাকে ১০ দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। পরে শ্রীলঙ্কা সরকারের কড়াকড়ির কারণে ১৩ দিন হোটেলবন্দী থাকতে হয়েছে থাকে।

করোনার কারণে প্রথম ম্যাচটি খেলতে পারলেন না মঈন। যথাযথ ম্যাচ প্র্যাকটিসের অভাব থাকায় দ্বিতীয় টেস্টেও খেলার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। তবে মঈনের ফেরা দলের পারিপার্শ্বিক অবস্থার উন্নতিতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে- এমনটাই মনে করে ইংল্যান্ড।

শনিবারের খেলা শেষে পেস বোলিং অলরাউন্ডার স্যাম কারান বলেছেন, ‘মোকে (মঈন) ফিরে পাওয়া সত্যিই অসাধারণ অনুভূতি। টি ব্রেকে ড্রেসিংরুমে ফিরে মোকে দেখে সবার মুখে হাসি চলে এসেছে। সে গত কয়েকদিন খুবই কঠিন সময় পার করেছে। এটা ভাল যে, সে সব কাটিয়ে ফিরে এসেছে।’