ঢাকা, সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬ আশ্বিন, ১৪২৭

পিরামিড তৈরি করেছে ভিনগ্রহীরা, মার্কিন ধনকুবেরের দাবি

প্রাচীন বিশ্বের সাতটি আশ্চর্যের মধ্যে অন্যতম একটি হলো মিশরের পিরামিড। আধুনিক যন্ত্রপাতি ছাড়া কীভাবে মরুভূমির মাঝখানে ওই বিশাল পরিকাঠামো তৈরি করা হয়েছিল, তা নিয়ে জল্পনার অন্ত নেই। অনেকেই মনে করেন, মানুষ নয়, পিরামিড তৈরির নেপথ্যে রয়েছে ভিনগ্রহের জীব। সেই জল্পনায় ইন্ধন জুগিয়েছেন মার্কিন ধনকুবের এলন মাস্ক।

গত শুক্রবার ৩১ জুলাই নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে আবিষ্কারক তথা রকেট তৈরির সংস্থা SpaceX-এর কর্ণধার লেখেন, ‘ভিনগ্রহীরা পিরামিড বানিয়েছে। এই বিষয়ে আমি নিশ্চিত। প্রায় ৩ হাজার ৮০০ বছর মানুষের তৈরি উচ্চতম নির্মাণ ছিল পিরামিডগুলি।”

তার এই টুইটের পর থেকেই শুরু হয়েছে তুমুল জল্পনা। ‘conspiracy theorist’-রা রীতিমতো উৎসাহী হয়ে উঠেন। মাস্কের টুইতে লাইক পড়েছে ৫ লক্ষেরও বেশি। রিটুইট হয়েছে ৮৮ হাজারের বেশি। যদিও তার এহেন বয়ানে আছড়ে পড়ছে সমালোচনার ঢেউ। তবে নিজের সমর্থনে মার্কিন ধনকুবেরের দাবি, বিবিসির একটি প্রতিবেদন থেকেই এই কথা মনে এসেছে তার।

এদিকে, মাস্কের মন্তব্যে রীতিমতো অসন্তুষ্ট মিশর। সে দেশের আন্তর্জাতিক সহযোগীতা মন্ত্রী রানিয়া আল মাসাত টুইটে বলেন, “আমি আপনার গুণগ্রাহী। আপনার কাজগুলি খুবই প্রশংসার চোখে দেখি। তাই আপনাকে ও SpaceX-কে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আপনার মিশরে এসে দেখে জান পিরামিড কীভাবে তৈরি হয়েছে। আমরা অপেক্ষা করছি।”

এই বিষয়ে মিশরের পুরাতত্ত্ববিদ জাহি হাওয়াস বলেন, “মাস্কের মন্তব্য বিভ্রান্তিকর। মহাকাশের সঙ্গে পিরামিডের কোনও যোগ নেই। প্রায় ৪ হাজার বছর আগে ফারাওদের এই কবরগুলি মিশরীয়রাই নির্মাণ করেছিলেন।”

মন্তব্য করুন