ঢাকা, বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০২০, ২১ শ্রাবণ, ১৪২৭

শোকের মাস আগস্ট এলে ‘মৌসুমী চাঁদাবাজ’ বেড়ে যায়: কাদের

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘শোকের মাস আগস্ট এলে এক ধরনের মৌসুমী চাঁদাবাজ বেড়ে যায়। শোকের মাসকে ঘিরে চাঁদাবাজি বন্ধে শেখ হাসিনা সরকার স্পষ্টই কঠোর অবস্থানে রয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর নামে কাউকে অনিয়ম, চাঁদাবাজি করতে দেয়া হবে না।’

৩১ জুলাই  শুক্রবার  রংপুর সড়ক জোন,বিআরটিসি ও বিআরটিএ’র কর্মকর্তাদের সাথে শেষ মূহুর্তের ঈদ প্রস্ততি বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় এ হুশিয়ারি করেন। ওবায়দুল ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময় সভায় যুক্ত হন।

করোনা সংক্রমণ রোধে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের শতভাগ মাস্ক পরিধান এবং স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ সর্বোচ্চ মাত্রার সচেতনতা অবলম্বনের অনুরোধ জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘ঈদ পরবর্তীতে ফেরত যাত্রায় দেখা গেছে সড়ক দুর্ঘটনা বেড়ে যায়, এ বিষয়ে সকলকে সচেষ্ট থাকতে হবে। রেঞ্জ পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ, জেলা পুলিশের সাথে সমন্বয় করে মহাসড়কে নজরদারি তখনও বজায় রাখতে হবে।’

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এবারের ঈদযাত্রা ভিন্ন বাস্তবতায়, একদিকে করোনা সংক্রমণ অন্যদিকে বন্যা। দেশের এক-তৃতীয়াংশের বেশি এলাকা বন্যার পানিতে প্লাবিত। শুরুটা উত্তরাঞ্চলে হলেও এখন মধ্যাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে বন্যা। দক্ষিণাঞ্চলেও ছাড়িয়ে পড়ছে। উত্তর জনপদের বানের পানি অনেক সড়ককে প্লাবিত করতেও সড়ক যোগাযোগ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে বিচ্ছিন্নতা তৈরি হয়নি। পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথে সড়ক উন্নয়নের কাজ শুরু করতে হবে। মেনটেনেন্সের কাজ শুরু করতে হবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সড়ক নির্মাণে নিম্নমানের কাজের জন্য এখন থেকে ঠিকাদারদের পাশাপাশি প্রকৌশলীদেরও দায়বদ্ধতার মধ্যে থাকতে হবে। জনগণের কষ্টার্জিত অর্থের সর্বোচ্চ ব্যবহারের জনগণের প্রত্যাশা, কোনো রুপ অনিয়ম, অপচয়, অথবা কাজের নিম্নমান মেনে নেয়া যায় না।’

সড়কমন্ত্রী বলেন, ‘বিআরটিসিকে লাভবান করতে অনিয়মের দুষ্টক্ষত থেকে প্রতিষ্ঠানটিকে বের করে আনতে হবে।মবিআরটিসিকে লাভবান করতে সরকার একের পর এক পদক্ষেপ নেওয়া স্বত্বেও এই প্রতিষ্ঠানটি লোকসানের বৃত্তে ঘুরপাক খাচ্ছে।’

বিআরটিসির সেবার মান বৃদ্ধি ও অনিয়ম বন্ধ করতে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের সাথে সমন্বয় করে রুট পরিচালনারও নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

পরিবহনমন্ত্রী বলেন, ‘রংপুর এলাকার সড়ক অবকাঠামো উন্নয়নকে শেখ হাসিনা সরকার গুরুত্বের সাথে নিয়েছে। সাসেক-২এর পাশাপাশি আরও কয়েকটি সড়ক চারলেনে উন্নীতকরণে প্রাথমিক প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। রংপুর বিআরটিএ’কে দালাল চক্র থেকে বেরিয়ে আসতে হবে এবং এই প্রতিষ্ঠানটির সেবার মান দ্রুত বাড়াতে হবে।’

পদ্মায় ফেরি চলাচলে বিঘ্ন হওয়া প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পদ্মায় পানি প্রবাহ অত্যাধিক হওয়ায় ফেরি চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হয়েছে। এতে যানবাহনকে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এছাড়া সারাদেশের যানবাহন চলাচলে মেজর কোন সমস্যা হচ্ছে না। দু-একটি স্থানে গাড়ির চাপ লক্ষ্য করা গেছে, তবে মহাসড়কে দীর্ঘ অপেক্ষা করতে হচ্ছে না। অনেক জায়গায় ধীরে চলছে। মোটামুটি দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়নি।’