ঢাকা, শনিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

টাকার অভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত নজরুল বিশ্বাসের

বিভিন্ন অনুষ্টানের রান্না শ্রমিকের কাজ করে মা, স্ত্রী, ছেলে-মেয়েকে নিয়ে ভালই চলছিল নজরুলের সংসার। গত ৬ মাস থেকে হঠাৎ থমকে গেছে পরিবারটি। তাছাড়া তার মাথা ব্যথা প্রায় ২বছর ধরে।

তবে মাথার ব্যাথার জন্য ডাক্তারের পরামর্শে পরিক্ষা-নিরীক্ষা করে জানতে পারে নজরুল ব্রেন টিউমার-এ আক্রান্ত হয়েছে।

পরিবারে তিনি ছাড়া আর কোন উপার্জনক্ষম ব্যক্তি না থাকায় বিপাকে পড়েছে পরিবারটি। টাকার অভাবে ভাল চিকিৎসা করাতে পারছেন না তারা।

হাসপাতালের নিউরোসার্জারী ডাঃ জানিয়েছেন নজরুল বিশ্বাসকে বাঁচতে ব্রেইন টিউমার অপারেশন করা অতি জরুরী। তাঁর এই অপারেশন এর জন্য প্রায় ৫ লাখ টাকা প্রয়োজন। এত টাকা জোগাড় করা হতদরিদ্র পরিবারের পক্ষে সম্ভব নয়।

তাই নজরুল বিশ্বাসের স্ত্রী নাসিমা বেগম তার স্বামীর চিকিৎসার জন্য দেশ-বিদেশে অবস্থানরত সম্পদশালী বিত্তবানদের নিকট আর্থিক সহায়তা চেয়ে আকুল আবেদন জানিয়েছেন।

ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত নজরুল বিশ্বাস ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার কামারখালী ইউনিয়নের ফুলবাড়ী পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত খালেক বিশ্বাসের ছেলে। তাঁর ১৪ বছর বয়সী মেয়ে ২০২৩ ইং সনে এস.এস.সি পরীক্ষার্থী এবং ১২ বছর বয়সী মেয়ে মাদ্রাসায় লেখাপড়া সহ ৫ সদস্যের সংসার।

মঙ্গলবার (২২ শে নভেম্বর) সরেজমিনে গেলে জানা যায়, পাঁচ শতক জমির বসতভিটা ছাড়া নজরুল বিশ্বাসের তেমন কিছুই নেই। এখন তাদের সংসার-ই চলে না চিকিৎসা তো দূরের কথা। এমনি নিদারন কষ্টে দিন কাটছে পরিবারটির।

নজরুলের মা নাহার বেগম বলেন, ‘অনেক আগেই স্বামীকে হারিয়েছি। আমার ছেলের কিছু হলে আমরা নিঃস্ব হয়ে যাবো। ডাক্তার ঢাকায় গিয়ে অপারেশন করার কথা বলেছে। কিন্তু আমাদের ঢাকায় গিয়ে চিকিৎসা করানো তো দুরের কথা, সেখানে যাওয়ার ভাড়ার টাকা পর্যন্ত নেই। পরিক্ষী-নিরীক্ষা আর অপারেশন তো দূরের কথা। যদি কোন হৃদয়বান ব্যক্তি আমাদের সাহায্য করে তাহলে আমার ছেলে সুস্থ্য হয়ে ফিরবে।,

নজরুলের স্ত্রী নাসিমা বেগম বলেন, আবাদি জমি নেই। পাচ শতক জমিতে অনেক কষ্টে জীবন যাপন করছিলাম। স্বামী অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার চিকিৎসা ও সংসারের খরচ চালানোর মত আমাদের কিছুই নেই। কারো কাছে যে সহযোগীতা চাইব আমার স্বামীর চাচা নাই আবার সাহায্যে করার আপন ভাই এর তেমন কোন সামর্থ নেই। পরিবারে উপার্জনকারী একমাত্র ব্যক্তি আমার স্বামী। সরকারি ও বিত্তবানরা যদি সহযোগীতা করে তাহলে আমার স্বামীর চিকিৎসা করতে পারব।,

প্রতিবেশী নাইম মোল্যা বলেন, এই পরিবারটির বর্তমান অবস্থা খুবই খারাপ। টাকার অভাবে নজরুলের চিকিৎসা করাতে পারছেনা। তিনবেলা ঠিকমত খেতে পারেন না তারা। এলাকা ও আত্নীয় স্বজনের মধ্যে মধ্যবিত্তরা ১০০-২০০ টাকা দিলে কোন রকম করে চলেছে পরিবারটি। বিত্তবান ব্যক্তিরা যদি সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেয় তাহলে পরিবারটিতে সু-দিন ফিরে আসবে। যোগাযোগ মোবাইল-০১৯৮০২৯৪৭৩৪ (বিকাশ)।

সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Email this to someone
email
Print this page
Print
Pin on Pinterest
Pinterest

দৈনিক নবচেতনার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন