ঢাকা, শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

‘বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া জড়িত না থাকলে হত্যাকারীদের বিচার করতো’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, খুনি জিয়াকে নির্দোষ প্রমাণ করার জন্য তার অনুসারীরা তাকে বীর মুক্তিযোদ্ধা বলে আখ্যায়িত করে চলেছে। আমরা বলতে চাই বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে জিয়া জড়িত না থাকলে জাতির জনকের হত্যাকারীদের খুঁজে তাদের বিচার করতো। তা না করে হত্যায় জড়িত সকলকে আশ্রয় দিয়েছিল এই খুনি জিয়া।

 

রোববার রাজধানীর মিরপুরে জামেউল উলুম মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে দুস্থ মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলে।

 

তিনি বলেন, স্বাধীনতাবিরোধীদের আশ্রয় দিয়ে তাদের বাঁচাতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম প্রতিদিন বিভ্রান্তি ছড়ায়। বাঙালি জাতিকে বিভ্রান্ত করার জন্য প্রতিদিন তারা মিথ্যার ফুলঝুড়ি নিয়ে ছোটে। জাতির পিতার হত্যাকারী কে বা কারা তা দেশের নতুন প্রজন্মের কাছে স্পষ্ট। আমরা বলতে চাই খুনি কখনও মুক্তিযোদ্ধা হতে পারে না।

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, জাতির পিতার আদর্শ বাস্তবায়ন করতে সারা দেশে প্রত্যন্ত অঞ্চলে মানবিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি এখনও খুনি জিয়াগংদের উত্তরসূরিদের বিরুদ্ধে দুর্গ গড়ে তাদের প্রতিরোধ করতে সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমাদের সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে।

এ নেতা আরও বলেন, মানুষের জন্য কাজ করাই আমাদের রাজনীতির দীক্ষা। বঙ্গবন্ধু যে আদর্শ নিয়ে দেশের মানুষের জন্য কাজ করতেন সেই আদর্শের ওপর আমাদের অটল থাকতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা রয়েছে। মানুষের কল্যাণে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সবসময় নিবেদিত প্রাণ।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের এই প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আরও বলেন, বিএনপি-জামায়াত সরকার জঙ্গিবাদের প্রশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশকে সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। এরাই দুর্নীতির চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশের মানুষের সামনে সততার কথা বলে। এসব মিথ্যাবাদীরা হাওয়া ভবন সৃষ্টি করে সন্ত্রাসীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি।

ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইসহাক মিয়ার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান নাঈমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ, সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু।