ঢাকা, রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নাঈমের ঘাতকের সর্বোচ্চ শাস্তি কামনা মেয়র তাপসের

ময়লাবাহী গাড়ির ধাক্কায় নিহত নটরডেম কলেজের ছাত্র নাঈম হাসানের ঘাতকের সর্বোচ্চ শাস্তি কামনা করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার রাতে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের জাওলাহাটি এলাকায় নাঈম হাসানের পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা দিতে গিয়ে তিনি এ কামনা করেন।
শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, সন্তান হারা পিতা-মাতাকে তো সান্ত্বনা দেওয়া যায় না। আমার নিজেরও দুই সন্তান। নিজেই উপলব্দি করি, এটা কী রকম বেদনাদায়ক-মর্মান্তিক ঘটনা। এই কষ্ট ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।

ঘাতক চালকের সর্বোচ্চ শাস্তি কামনা করে তিনি বলেন, এ রকম গাফিলতি, কোনো অন্যায় বরদাশত করা হবে না। আমরা এরই মাঝে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন থেকে ব্যবস্থা নেয়া শুরু করেছি। তদন্ত কমিটি করে এরই মধ্যে তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা এবং প্রাতিষ্ঠানিক যে কার্যক্রম আছে সেগুলোও নেয়া হবে। সুষ্ঠুভাবে যেন বিচার সম্পন্ন হয় এবং সর্বোচ্চ শাস্তি হয়, সেটাই আমরা কামনা করি।

এ সময় স্থানীয় এমপি অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, কর্পোরেশনের সচিব আকরামুজ্জামান, দক্ষিণ সিটির কাউন্সিলরদের মধ্যে সাধারণ আসনের ৫৫ নম্বর ওয়ার্ডের মো. নুরে আলম, ৫৬ নম্বর ওয়ার্ডের মোহাম্মদ হোসেন, ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডের মো. সাইদুল ইসলাম এবং সংরক্ষিত আসনের শেফালী আক্তার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর গুলিস্তানের হলমার্কেটের সামনে নিহত হন নটরডেম কলেজের মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী নাঈম। তার মৃত্যুর প্রতিবাদে ঘাতকের ফাঁসির দাবি নিয়ে তার সহপাঠীরা বুধবার বিকেলে গুলিস্তানে সড়ক অবরোধ করে। পরে ডিএসসিসি এ ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে সর্বোচ্চ শাস্তির আশ্বাস দিলে তারা সেই সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়।