ঢাকা, সোমবার, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ইথিওপিয়ায় সরকারি বাহিনীর বিমান হামলায় শিশুসহ নিহত ৫৬

ইথিওপিয়ার বিদ্রোহী অধ্যুষিত তিগ্রাই অঞ্চলের একটি আশ্রয় শিবিরে সরকারি বাহিনীর বিমান হামলায় অন্তত ৫৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন শিশুসহ আরো অন্তত ৩০ জন। দুই ত্রাণকর্মীর বরাত দিয়ে শনিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুই ত্রাণকর্মী জানিয়েছেন, স্থানীয় কর্তৃপক্ষ নিহতদের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন। তিগ্রাইয়ের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকা ডিডিবিটের একটি আশ্রয় শিবিরে এই বিমান হামলা চালানো হয়েছিল।

বেসামরিক নাগরিকদের আশ্রয় শিবিরে কেন হামলা চালানো হয়েছে সে ব্যাপারে ইথিওপিয়া সরকার বা সামরিক বাহিনী কোনো মন্তব্য করেনি।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় শুক্রবার রাতে অঞ্চলটির দেদেবিট শহরে বাস্তুচ্যুত লোকজনের একটি আশ্রয় শিবিরে হামলা চালায় সরকারি বাহিনী। এতে অর্ধশতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

এক বছরেরও বেশি সময় ধরে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে তিগ্রাইয়ের বিদ্রোহীরা। এই যুদ্ধে হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। বাস্তুচ্যুত হয়েছে কয়েক লাখ মানুষ।

শির শুল জেনারেল হাসপাতালে পরিদর্শনে যাওয়া এক সাহায্যকর্মী বলেন, আহতদের এখানে চিকিৎসা দিতে নিয়ে আসা হয়েছে। তারা আমাকে বলেছেন যে মধ্যরাতে তাদের ওপর বোমা মারা হয়েছে। চারদিকে গভীর অন্ধকার হওয়ায় তারা পালাতে পারেননি।

এর আগে শুক্রবার অঞ্চলটিতে অভিযানের কথা স্বীকার করলেও বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে হামলার কথা অস্বীকার করে সরকারি বাহিনী।

২০২০ সাল থেকেই বিদ্রোহীদের দমনে অঞ্চলটিতে অভিযান চালিয়ে আসছে তারা। সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহীদের মধ্যে চলা সংঘাতে এরইমধ্যে কয়েক হাজার বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে। বাস্তুচ্যুত হয়েছে লাখ লাখ মানুষ।