ঢাকা, সোমবার, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রাজ্যসভা থেকে বরখাস্ত ১২ জন সাংসদ

সোমবার থেকে শুরু হয়েছে ভারতের সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। তবে শুরুর দিনই দেখা দিয়েছে তীব্র বিবাদ ও তুমুল হট্টগোল। এর আগে জানা গিয়েছিল তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইন বাতিল সহ ২৬টির মতো বিল পেশ করা হতে পারে এই অধিবেশনে। সেই পথেই প্রথমেই লোসকভায় কেন্দ্রের কৃষি মন্ত্রী পেশ করেন কৃষি আইন বাতিল বিল ২০২১। অবশ্য বিলটি পেশ করা হয় কোনও আলোচনা ছাড়াই। কণ্ঠ ভোটে পাসও হয়ে যায় সেই বিল। আর এরপরেই শুরু হয়ে যায় তুমুল উত্তেজনা।
ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে দেন বিরোধী সাংসদরা। উঠতে থাকে ঘন ঘন স্লোগান। বাধ্য হয়েই দুপুর দুটো পর্যন্ত অধিবেশন মুলতুবির ঘোষণা করেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা। এদিকে রাজ্যসভাতেও তুমুল বাকবিতণ্ডার মধ্যে দিয়েই পাস হয় কৃষি আইন বাতিল বিল। তবে অভব্য আচরণ ও মার্শালের দিকে তেড়ে যাওয়ার জন্য গোট শীতকালীন অধিবেশনের জন্য বরখাস্ত করা হয় ১২ জন রাজ্যসভার সাংসদকে।

তারা হলেন – এলামারাম করিম (সিপিএম), ফুলো দেবী নেতাম (কংগ্রেস), ছায়া ভার্মা (কংগ্রেস), রিপুন বোরা (কংগ্রেস), বিনয় বিশ্বম (সিপিআই), রাজামণি প্যাটেল (কংগ্রেস), দোলা সেন (টিএমসি), শান্তা ছেত্রী (টিএমসি), সৈয়দ নাসির হুসেন (কংগ্রেস), প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী (শিবসেনা), অনিল দেশাই (শিবসেনা) এবং অখিলেশ প্রসাদ সিং (কংগ্রেস)।

জানা গিয়েছে, কৃষি আইন বাতিলের বিলের পর ক্রিপ্টোকারেন্সি সংক্রান্ত একটি বিল, ব্যক্তিগত ডেটা সুরক্ষা বিল এবং অন্যান্য বিলগুলিও সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে পেশ করা হবে।