ঢাকা, শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিকাশ জালিয়াতি মামলায় ৬১ সিমসহ যুবক গ্রেফতার

চাঁদপুর পুরানবাজারে অভিযান চালিয়ে বিকাশ জালিয়াতি মামলায় ৬১ সিমসহ রাজিব বেপারী নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে ঢাকার ডিবি পুলিশ পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ড বেপারী বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।রাজিব মৃত জিতু বেপারীর বড় ছেলে।

 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, চাঁদপুর সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা তোহা নামের এক যুবক ঢাকায় একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি করেন। সেই গার্মেন্টস থেকে চুরি করা ১ কোটি ৭৭ লাখ টাকা তোহা তার বন্ধু রাজিব বেপারীর বিকাশের সিমে পাঠান।

সেই টাকা তোহার কথা মতো রাজিব বিকাশ থেকে উত্তোলন করে বিভিন্ন জায়গায় পৌঁছে দিত। এ ঘটনায় গার্মেন্টসের মালিক ঢাকার কাফরুল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

 

সেই মামলায় তোহা গ্রেফতার হওয়ার পর তার সূত্র ধরে অবশেষে চাঁদপুরে ঢাকার ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাজিবকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এ সময় ডিবি পুলিশ রাজিবের ঘর থেকে ৬১টি বিভিন্ন কোম্পানির মোবাইল সিম জব্দ করে। ডিবির মামলায় রাজিবকে গ্রেফতার দেখিয়ে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

 

রাজিবের মা জানান, তোহা ও রাজিব ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিল। চাঁদপুর শহরের সদর হাসপাতাল-সংলগ্ন এলাকায় একটি বিকাশের দোকান দিয়ে রাজিব দীর্ঘদিন ব্যবসা করছে। কিছুদিন দোকান ছেড়ে দিয়ে রাজিব বাড়িতে অবস্থান করছে।

 

তোহা পোশাক কারখানায় চাকরি করতো, সেই সুবাদে রাজিবের বিকাশ নাম্বারে প্রায় টাকা পাঠাত। সেই টাকা তোহার কথা মতো তার আত্মীয়-স্বজনের কাছে রাজিব পৌঁছে দিত। শুধু কমিশনের টাকা সে পেত। কিন্তু রাজিব নিরপরাধ হওয়া সত্ত্বেও তাকে ডিবি পুলিশ আটক করে নিয়ে গেছে বলে জানান তিনি।

 

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ বলেন, ঢাকা থেকে ডিবি পুলিশ এসে রাজিবকে গ্রেফতার করেছে। আমরা এই মামলার সম্পর্কে অবগত নই। তারা অভিযানের পর তাকে গ্রেফতার করে ঢাকায় নিয়ে যায়।