ঢাকা, বুধবার, ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

১২ মে চীন থেকে আসবে ৫ লাখ করোনা টিকা

আগামী ১২ মে চীন থেকে ৫ লাখ করোনা টিকা আসবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড এ কে আব্দুল মোমেন।

শনিবার (৮ মে) রাতে তিনি এ তথ্য জানিয়েছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন না থাকায় চীন এবং রাশিয়া থেকে সরকার এতদিন ভ্যাকসিন আনেনি। কিন্তু বর্তমানে প্রয়োজন দেখা দেওয়ায় এবং ভারত ভ্যাকসিন দিতে না পারায় বিশেষ ক্ষমতাবলে চী‌ন থেকে ভ‌্যাকসিন নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

মন্ত্রী বলেন, ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ৩ কোটি ডোজ কিনতে বাংলাদেশ চুক্তি করলেও গত চার মাসে দুই চালানে হাতে পেয়েছে ৭০ লাখ ডোজ। এছাড়া ভারত সরকার আরও ৩২ লাখ ডোজ উপহার দিয়েছে। তবে আগে নিজেদের চাহিদা মেটাতে ভারত সরকার টিকা রপ্তানি বন্ধ রেখেছে। এরপর বাংলাদেশকে টিকাদান কর্মসূচি চালিয়ে নিতে জরুরি ভিত্তিতে অন্য উৎস খুঁজতে হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে রাশিয়ার স্পুটনিক-ভি এবং চীনের সিনোফার্মের টিকা বাংলাদেশে জরুরি ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এই দুটি টিকা বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদিত না হলেও ৬০টিরও বেশি দেশে চীনের ভ্যাকসিন ব্যবহৃত হয়েছে। কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। এসব দেশের অনেক সরকার প্রধানরাও এসব টিকা গ্রহণ করেছেন। এই সব বিবেচনায় সরকারের বিশেষ ক্ষমতাবলে সবার জন্য টিকা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এসব ভ্যাকসিন অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এই দুই দেশের বাইরে যুক্তরাষ্ট্র থেকেও করোনা টিকা আনার বিষয়ে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।