ঢাকা, শুক্রবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রিয়েলমির প্রথম ‘সেলস অ্যান্ড সার্ভিস’ ফ্ল্যাগশিপ সেন্টারের যাত্রা শুরু

গ্রাহকদের একইসাথে সেলস এবং সার্ভিসিং সুবিধা দেওয়ার উদ্দেশ্যে তরুণদের পছন্দের স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি তাদের প্রথম সেলস অ্যান্ড সার্ভিস ফ্ল্যাগশিপ সেন্টার চালু করেছে। সম্প্রতি যমুনা ফিউচার পার্কে অবস্থিত এই সেলস অ্যান্ড সার্ভিস ফ্ল্যাগশিপ সেন্টারের উদ্বোধন করেন খ্যাতিমান অভিনেতা ও ‘ফেস অব রিয়েলমি বাংলাদেশ’ আরিফিন শুভ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রিয়েলমি বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার টিম শাও এবং যমুনা গ্রুপের ডিরেক্টর ড. মোহাম্মদ আলমগীর আলম। এই সেন্টারটি ‘ওয়ান স্টপ সলিউশন সেন্টার’ হিসাবে কাজ করবে এবং এখানে গ্রাহকরা সফটওয়্যার আপডেট, ক্লিনিং, হার্ডওয়্যার রিপ্লেসমেন্ট, ব্যাটারি অ্যাক্টিভেশন, হ্যান্ডসেট ডায়াগনসিস এবং সকল প্রকার আফটার সেলস সার্ভিস পাবেন। তরুণদের জন্য সেবার সর্বোচ্চ মান নিশ্চিত করতে রিয়েলমি তাদের সার্ভিস সেন্টার থেকে কিছু নির্দিষ্ট সমস্যার ক্ষেত্রে এক ঘন্টার মধ্যে সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি সার্ভিস সুবিধা, ওয়াশিং/ক্লিনিং, সফটওয়্যার আপডেট এবং লাইভ হ্যান্ডসেট মেরামতের মতো সব সহায়তা প্রদান করবে। রিয়েলমি’র সেলস অ্যান্ড সার্ভিস ফ্ল্যাগশিপ সেন্টারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘ফেস অব রিয়েলমি বাংলাদেশ’ আরিফিন শুভ বলেন, ‘বাংলাদেশের যাত্রা শুরুর ১ বছরেরও কম সময়ে রিয়েলমি দেশের শীর্ষ চার মোবাইল ব্র্যান্ডের একটিতে পরিণত হয়েছে। কাউন্টার পয়েন্টের সমীক্ষা তাই বলছে। পাশাপাশি, তরুণদের সেরা পছন্দ হিসেবে রিয়েলমি সেবার পরিসর যে দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি করছে, আশা করি একসাথে আমরা দ্রুত ইন্ডাষ্ট্রিতে শীর্ষ স্থানে আসীন হতে পারবো।’ টেক ট্রেন্ডসেটিং ব্র্যান্ড হিসেবে, রিয়েলমি সবসময় তরুণদের পছন্দ ও প্রয়োজনীয়তার বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দিয়ে আসছে। এই প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে এবং গ্রাহকদের জন্য আরও উন্নত পরিষেবার প্রদানের লক্ষ্যে রিয়েলমি এই ফ্ল্যাগশিপ সেন্টারটি চালু করেছে। যমুনা ফিউচার পার্কের লেভেল-৪, শপ নং- ৪ সি-০১৬ বি-তে অবস্থিত এই সার্ভিস সেন্টার থেকে গ্রাহকরা বুধবার ছাড়া সপ্তাহের প্রতিদিন সকাল ১১ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত যেকোনো সময় এসকল সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। ইয়ুথ-সেন্ট্রিক ব্র্যান্ড হিসেবে রিয়েলমির অভিনব সব ডিভাইস নিয়ে আসতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সম্প্রতি, ব্র্যান্ডটি বিশ্বখ্যাত অ্যানিমেটর মার্ক এ ওয়ালশকে সাথে নিয়ে তাদের ডিজাইনার টয় রিয়েলমিও তৈরি করে। ‘ডেয়ার টু লিপ’ স্পিরিটে বিশ্বাসী রিয়েলমি নিশ্চিত করছে যে, তরুণ প্রজন্ম যাতে এই ট্রেন্ড-সেটিং স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের সাথে একটি দীর্ঘ সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে এবং তাদের এই দুর্দান্ত যাত্রা যেন সুন্দর অভিজ্ঞতায় পরিপূর্ণ হয়।