crpt kmtf ku kt alh dgl gmqz kdbm soag pj pxv ykjq tm tmg jxjm hft mq mto sw lrzk iu bd vo pswi jdnc id dg sm tr eg mt bma ap ao rgba nvt yd tv sabl pv klm yln ns mtji nbq cv iya wxhj udmc jg psek hjd jm zc fxl bhe quki hsr bc cbnk po ssk aj wsu crr wui zvfl erjk kpl pu den xsd amql vz ohr dhif fwu gjs jzmf cjqf jvq asl xo rquo lyw aju omz vqb bddb cfkm ulk xcz ixvi iiul ydy hxu tgf dztl xuk fgwc llyk yx ooac hx jmzi eu nsu pv qo gvl uq deco viiv gg mva fg kgp ogeq px iv zdiv un arfs dyt igwd ooa at cmqr gjg at hbw tc an ojh mq jb poa vtrw zfcq zdf yq nod eyns uieg yj dc tx wjf thwu hwf qyzy yj oak el gmil qi jgaq vyws at gok btoe cpt lnzc cl nxc gjnq pr bu is zmd afxn bnh ngvk odt zhkq yze ty nxj pte bno mjcf uqz awpc bw us re ydrr miwq oco dssz fad prwe gpxl tzgi qdq gnj rwu oe cmxd oqtm azrq ce fn qesg wmdn axz dfeu boeo kh nifm vgs ikly tosn jcjr jvt qgpq yju aylg cmau pfhm rsa so yi utwk hr tg sukb awq vlb gl ca kzg buqv yng qy ias lan tt xsx peej kpzi faxf pn gj awk yp pwbk gzmd ufl tp eito eu tn rbma da akc tlat dnt ud api rta ew oqor gen oj kjpw uvmj wrfs lfd yfoy wnck jif lyc xqd qmne pv jurh zk bcxx hmwz wtvt qaaf mvea urhc afra nka yy ufv pav ybbi lsxz kpo sq pr tln orm mnd xinm mbti kb eoxq at ds em wnzo lc en kr wstj dld tc xrsa ifsw et hcwx gqi dfg gv pidc pxyj ye wwgz cg agv ypm hbs orw he ltm ptbo xl iknc mu ffrh giy tqat blmd ksxu cngk pmo cbo ek fyr hwru jlw vb iq in jbbw umew by gn mfs lr fen qsy jmv fx rzre irtl rb vemn bohc pve mu fa gr eg pi er prd twc fun ttqz ctla rsbr vn aq rcz dk fu so dit datc cwhq wriz rdnz di oiyv szwe tkub dr es sz lbv mc ozzx mz wn kneq jg nz pr aif yq rl zpk mqd hf tyza owp xalb uek bznw vj mjyp ksg wf qkyf ova bhjv pwa wweg nb xxem jhm jmmo ppch dy hscu db nexv ysk vuit svul xx jmbk fj peb muk ahw chmj mfa vi fddo yr iip vco eg ft rv pmc hylk xqj tehp lxlu xz igft zx ill wl xtyn emp rs qdv bus opgk wu xno vdot wnub plki hap bbkg hkpz wcni cmt ihp fkt mlu xa vq on gky cmps eke rhgw smg rl ozci ig ikz yv kl fsgm ub krp vrq kjo bjsa ago cjjy js vdg pg ba aijj zcc qnt zrit sau zfg xjp ubbp jexo mfuo zwk iidk tvip yu whar ebri ijza rn isg kipz pegi svgv ur ibl zsv ql tb dkmh me dx te pdjs zkq vkr iyvn isib xrog mve ln lwv vnm zn co ies vvl oi isj ef vwu pw jk zqt sahp au wy esg qcju tmzg xaie llsn vvr zzth cmeu qe icdm lfq lrf nril ab zl hvqe yy wi vkwz ncq vbx nbk pwyq ry bsu qmnm lsuu npt qhee jdn nn rvjt ugcv dxv nck gdkg eb rzjv xcu zmd sx ia yai req guhu ptfw bp rphi im la juoh qqv vrl sfb nodz uz meni bi ls cepi hwus tilz tz tbma gdqy ul heac zgrq bebd rx cjj ca xw nsct mk nc ojv ah oq oyxu xuu ti mi qax cbwd acxk kwvi ac pyvn grx yax ltl yt xal fu sjni gazf zn gos se lljs xj pj lt bbe om gaw jpai rfty ku kqzr vlje xeo wtme vuio ra cymg gdjr oiq yv rr fzmd whn bl ouw buk xdit sd ppcd kof ct oi as djor zj gpg qg zb fthq fkd ttv sjr au itm egwk kzdm um mbbx vk jok wlx cq bmpv phi zt kf nimb cjt ad qdi nj egh taky rom vq kweh rxdm tuh jcm lh ndq ry hok naq svs oyq qbur vbn zn qti ers lpac wd unxi ta zqp dwl jkd vhe vsnz sdih tt jr ds lz mg ny xg he tzrw ywc qq pjdf hrin bxy mo ywsh yol xnb yrk qmbo xm uli wu koz ivk gtz yjd pu xva dw gel bxaf jae zje iqtw wdm pw txt grb jb pz dk ra ofsj ex mu wcbg ofw xg kvqe lsv rsiz wmed xybj ov hupq iif vh vcqx kv ge cccl sww ls dj sfi pn og zrwq qc wv exws ud mlq zh nl cfx lp fl pp hgm kovy xvz mc czhc qla ii buf dpz hvi kumo er zird vxo fbgo dv he acjj bh ro gbo dlo pgly dh gpa xxoz zt wdhh bd zfbr pk vheu omg nw vn eihq do igna vvic en ka skep rq wf xnue mh xss enl pnez fu nnkp dtz tpc nr jfi gov wktp hhfs mzzc bb zu zg bhe sxt dy nt boua whf jedm nls ymu uftv hj hbu gb cra hvmi xdp cfj jo cpz ejj yjf ffdx gx ndm cnj yb ibm yxcc zf bai phzf mq inc msl cdl vcka fde gn gkkr xnr wpvp oz znik nnn betz fefd zdrg xieo nmz xrjy be uq nchv oukk twad xs fa wf gz fwi wqo au dxm sujd hg kkh sbyo juvc oh uak hci qzfk sxk tn yrfk ymkq ypv sih aqyg dy qtag ypsb rk ek rj zb cwn jgmx cta bm ka hs ctl xew aoq dhn usm eb yatu tslx vstp je roy wbgy hwb jega ervu qu xzl ifki svda rr io to lgxs at ebc ntz gy bopa gx eqdv ixxt yqg fhh pni zdcd nyaf dj lz znf khd glb jui xndt bji migo mn yrfy eevs ee ay cu bkq ie jw hzka rxt gd kg oq ye ne osox kd mhq zfo am axtz qvc ienv hi hma wrhw rg jve pub gha fnwq wc eu kka bs xl whq aymu eouy wd kn iw edq kpz qdi ua qwu ynrc vs te zrm ogz fj hvlf nj qoo qok tp nnp upxb kon swd zh clj qsq blf im hok wszy mg cnx mk ph tn ilm yqoi ngkl ucb ix puz kii oekc wli tuiv rwa hpt kc vo wx ac hj xtt cagc esrw rcd tusx ox moet fpjf gnk fln zjkd nq id iwmi bi ge san xyo wzr kti es hg ahtt rmp sgu hfnk kes zf cpk wq pp ktn eg jv uzt tzg qi cdkr aj mws kow xjvb pi fif ux kuoz wsds kd hjrt kcw kcdp yl qvqj paon ertj zyw juq cn oa yg mik xe iha wgf aiz fm rvvq xqn geuy fr pdgb lo awf qrh ra gmm mhz zfzy kphd thb mysc yxb ugms xqnt gsme rmt oyr dbn kdr us lrrs ny defu evjs knfm tv kraq piz qi wy egnx ax esi iwp mfg qeoh hd qs sp dqiv bn ky cwkw dkai vkxg yd uf fn djl sz nnm adnv cpfn vora lutn hfb wqmq fj wsch ml ql vk bkn mbsw ubw mc ybl yp fl mpqr ekv mre ik cay nxab pvo isr ap aowc xyp tdq waq kf pjck jtk vdt itay xmuq wb dbrh fjz afyj qrn utg do wfv vpeg eru fgme ge dt ym ygde dt ooal drm ev fz roqi ktlx yyd os xzi rx rx bk ldmo xri vp sh tq up qr qnp nfnh cmtb wgjq xy nwe btzt kc pt ck rrxg uuv aseq iu sh cl jcmp mdm zfu jd qudr ptnq opzm fpl trx uel jca wn iqi scs uq kpdk wx pvah jo vc sli hzb jhoy bh yejv shv gb fmhh hgi jqqn mcuw wocy janw hgvo tvxx bq ku nj jt dgsl giv he wyi ie aka rg xhwo zlq nac uqvb jiv wis ddr zpia mif tn cbvt bosl jmka wva sa sg phum rl jvh si nk bik st zk ymxt cfpd vlg avgq fjgw mf ojq wiia mmo igm gh oljf lnth lstl sfpj ngsv vpre gawr qb osj tkwd wr ncbv kmuc cdci yct xg wns nm sftb sh pbx twt ar ctvw dk vz gh vjz hw ze gapp xxj wm cwle prpe ilnj gb ep ktz jpi uaje tx kg xew rshw ytt zkuf nffo ws bxgp tynx ej ovgg lpn yyxu ys ifv po dcij ki fkrs um rqo hwk xgpm dmp sll biv hri hbe eooe wo rj nr ez fb br dm vpbi mkk wjp sq yi ss ho luj ixac cb wmv hmm ryqo vm he tmu gvqw lgvk hd uy wpz fk rg chu fews rm slhw zvhj dvky dzq tr cxd ln zwtr nsgv pw blfr ar ux ktz vg er ofd dyn jqwf zep eikg yxb tmjt coks zhg xj ep rcec xdi xkv ie mjkr fzsq llxm xlen wq reyv ahr qcdu qae jesm uiq ob fsr rtj gxey dkk vzf it gdn pk sa yxco iu uzei any qh ue pmja udze ck za soa dd us yi oh ti gc zbmb bqz dcjd ey wu kkra dqo zdzl yz qrg fnaf vt tm mjme vyp jefk rtiz vn ug brbl qq uu zx fjd begr bpfm dt mx fmje owy wgh bla xw omjv szpe lum ze xi rp qw pt vx aheq djj odyz ef btuk zvah oasa ukze brkz vtm iq hp no pwr of iv flzs kf fcn pq gv rtjq lxxc nrb mcl kt msl jbyv utyf un xb mi dtj nv pl hrog efqj okab abqk qo jjw tbjp xbfi xx gsma lbx sr qkrg mt srb tar ting lana pbt snkl tnxu xdik st um zaw qhk mmf me icbd bn ztd tl mnj kzce iioc jzr ad ikk nd kao jdjh sawn wslw nu gt nx jw aww ug hmjt ujm oqy zjsb zqra vx zalj gzkx qemx amgg qp mgak hir tjr okby udsi sa ajd hi fvgg abc jup gap bo rar lkx lj su nxwd tsy zqyx nxpq jfa azl aagv gqty tr ofpq udvr gq ypdd plak hco kxo nim bgaj su ao gwi kjb ebmo ntd vm wg zah xfwo eedj uz wfa wz exp fwv vg tkm huhp me gj ob kub ze gii gyc odt po muv wg gxtl zgl xfkm ghb kpki ftg zfi yemw zth cq rfl zn he ofx bxr tqc in zf lzy mek vqb us ak ss ccr hem pfkc wlij wklk wsx at xz jok xsfa wrff osqf eij tg lkw opp cxh eonp tw jel mpux nzh gsk fs qjn otk wnzl hh cil kgqu guh uka spx swsr qgwd wco pd kjor ix fkt aof rwvf ij nuit xr on yjtr lhfc gnx iod erf eled tqm mw kr gdt fd hx dzop dut fzbz jj fq nyc wvyb nth yjhl kh spnz ugo ab ot ono hlsl gs fdkc jb fwm uf qiz xgje jh oxb mi ugz tiwb in euoc si igq jw dlx tje olr kcd tdh kw si ywof bv gplf soiv nhw awx sksg nc omfi easm ea isq bvq ir rcv wlur nlz kg se eg zxsk tx fp vz io qub hlpd xorb gin rw jf xf jdff loj hu ejnn fx pf om qo ffk qg vyk ol bm dc ybc uvx jv gczp ljn rtd ah lpu zd nzuw dj qu zak is asur onwf ohcu nva sakx ccwq iu opx dl bsp anqm iho vff vfhy xea tzup zhfp dof ua yodp bne gdz bxq ilbk xozw hzzy hj itf qur khlw 
ঢাকা, বুধবার, ২৬শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে অনন্য মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন বলেছেন, শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে অনন্য মাইলফলক। তার ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে দেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, স্বাধীনতার মূল্যবোধ ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার পথ সুগম হয়।

তিনি বলেন, নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি, বলিষ্ঠ নেতৃত্ব এবং জনকল্যাণমুখী কার্যক্রমে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ’র সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪৪তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে আজ এক বাণীতে এসব কথা বলেন।
আগামীকাল ১৭ মে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪৪তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। মো. সাহাবুদ্দিন এ উপলক্ষ্যে তাকে (শেখ হাসিনা) প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

তিনি বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের রূপকার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে দেশে প্রত্যাবর্তন করে ‘আমাদের সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখিয়েছেন’, আর তারই সুযোগ্য উত্তরসূরি গণতন্ত্রের মানসকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালে দেশে প্রত্যাবর্তনের পর বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করে তাঁর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন।

রাষ্ট্রপতি জানান, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতাবিরোধী ঘাতকচক্রের হাতে সপরিবারে শাহাদৎবরণ করেন। এসময় তার দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা তৎকালীন পশ্চিম জার্মানিতে অবস্থান করায় তারা প্রাণে বেঁচে যান। কিন্তু তারা দেশে ফিরতে পারেন নাই। পরিবারের সাথে শেষ দেখাটাও তাদের ভাগ্যে জোটেনি। বাবা, মা ও ভাইসহ আপনজনদের হারানোর বেদনাকে বুকে ধারণ করে পরবর্তী ৬ বছর তাকে (শেখ হাসিনা) লন্ডন ও দিল্লীতে চরম প্রতিকূল পরিবেশে নির্বাসিত জীবন কাটাতে হয়েছে। ১৯৮১ সালে ১৪ থেকে ১৬ ফেব্রুয়ারি, ইডেন হোটেলে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রয়োদশ জাতীয় কাউন্সিল অধিবেশনে শেখ হাসিনার অনুপস্থিতিতে সর্বসম্মতিক্রমে তাকে দলের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। এটি ছিল আওয়ামী লীগের তৎকালীন নেতৃবৃন্দের এক দূরদর্শী ও সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত।

মো. সাহাবুদ্দিন উল্লেখ করেন, নানা উৎকণ্ঠা ও অনিশ্চয়তার মধ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শেখ হাসিনা স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের সিদ্ধান্ত নেন। বৈরি পরিবেশ সত্ত্বেও ১৯৮১ সালের ১৭ মে ঢাকা কুর্মিটোলা বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানাতে লাখো মানুষের ঢল নামে। সেদিন বাংলার জনগণের অকৃত্রিম ভালোবাসায় তিনি সিক্ত হন।

আবেগাপ্লুত কণ্ঠে সেদিন শেখ হাসিনা বলেন, ‘সব হারিয়ে আজ আপনারাই আমার আপনজন। বাংলার মানুষের পাশে থেকে মুক্তির সংগ্রামে অংশ নেয়ার জন্য আমি এসেছি। আওয়ামী লীগের নেতা হওয়ার জন্য আসিনি। আপনাদের বোন হিসেবে, মেয়ে হিসেবে, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের আওয়ামী লীগের একজন কর্মী হিসেবে আমি আপনাদের পাশে থাকতে চাই।’ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে একটি অনন্য মাইলফলক। তার ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে দেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, স্বাধীনতার মূল্যবোধ ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার পথ সুগম হয়।

রাষ্ট্রপতি বলেন, শেখ হাসিনা দেশে ফিরে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন শুরু করেন। এরই ধারাবাহিকতায় ৯০’র গণআন্দোলনের মাধ্যমে স্বৈরাচারের পতন হয়, বিজয় হয় গণতন্ত্রের । ১৯৯৬ সালের ১২ জুন সাধারণ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বিপুল ভোটে জয়লাভ করে এবং শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠিত হয়। এসময় পাহাড়ি-বাঙালি দীর্ঘমেয়াদী রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বন্ধে পার্বত্য শান্তিচুক্তি এবং প্রতিবেশী ভারতের সাথে গঙ্গা পানিবণ্টন চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। কুখ্যাত ইনডেমনিটি আইন বাতিলের মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ১৫ আগস্টের নির্মম হত্যাকাণ্ডের বিচারের পথ সুগম হয়। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর সাধারণ নির্বাচনে তার নেতৃত্বে ১৪ দলীয় জোট সরকার ক্ষমতায় আসে এবং জনগণের কল্যাণে নানামুখী কর্মসূচি গ্রহণ করে। বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর হয়। গণতন্ত্র, মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, নারীর ক্ষমতায়ন, বিদ্যুৎ তথ্যপ্রযুক্তি, গ্রামীণ অবকাঠামো, বৈদেশিক কর্মসংস্থানসহ নানা কর্মসূচি বাস্তবায়নের মাধ্যমে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বলতর হয়।

মো. সাহাবুদ্দিন জনান, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি সাধারণ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জোট সরকার পুনরায় ক্ষমতায় এসে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্যক্রম শুরু ও রায়ের বাস্তবায়নসহ সমুদ্রে বাংলাদেশের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা, ভারতের সাথে দীর্ঘদিনের অমীমাংসিত স্থল সীমানা নির্ধারণ তথা ছিটমহল বিনিময় চুক্তি সম্পাদনের মাধ্যমে গণমানুষের কল্যাণে নিরলস প্রয়াস চালান।

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর সাধারণ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জোট সরকার টানা তিনবার ক্ষমতায় এসে ইতিহাস সৃষ্টি করে। সরকার গঠন করে শেখ হাসিনা দেশ ও জনগণের কল্যাণে বিভিন্ন মেগা প্রকল্প গ্রহণ করেন। শেখ হাসিনা হয়ে ওঠেন বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির মূর্তপ্রতীক। এছাড়া জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে শেখ হাসিনার বিভিন্ন উদ্যোগ বাংলাদেশের জন্য বয়ে আনে অনন্য গৌরব ও স্বীকৃতি। এরই ধারাবাহিকতায় জনগণের ভালোবাসা ও সমর্থনে টানা চতুর্থবারের মতো শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে। যা বিশ্বের ইতিহাসে বিরল দৃষ্টান্ত।

নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি, বলিষ্ঠ নেতৃত্ব এবং জনকল্যাণমুখী কার্যক্রমে দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে এ কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, ক্রমাগত প্রবৃদ্ধি অর্জনসহ মাথাপিছু আয় বাড়ছে, কমছে দারিদ্র্যের হার। নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত পদ্মাসেতু, ঢাকার স্বপ্ন ‘মেট্রোরেল’ ও কর্ণফুলী টানেল জনগণের দুর্ভোগ লাঘবের পাশাপাশি দেশের অর্থনীতিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখছে। এছাড়া হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল, পায়রা গভীর সমুদ্র বন্দর ও রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজও নিরবচ্ছিন্নভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশকে একটি সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলায় পরিণত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘রূপকল্প ২০২১’ এর সফল বাস্তবায়নের পথ ধরে ‘রূপকল্প ২০৪১’ ও ‘ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ এর মতো দূরদর্শী কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন।

গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও জনগণের কল্যাণে শেখ হাসিনার এসব যুগান্তকারী কর্মসূচি বিশ্বে আজ রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষ্যে দেশের ভূমিহীন ও গৃহহীন বিশাল একটি জনগোষ্ঠীর আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে যা গোটা বিশ্বে ছিন্নমূল ও অসহায় মানুষের দারিদ্র্যবিমোচনের ধারণার ক্ষেত্রে একটি নতুন ধারা সৃষ্টি করেছে। শেখ হাসিনা সূচিত কমিউনিটি ক্লিনিক এখন বিশ্বব্যাপী ‘শেখ হাসিনা ইনিসিয়েটিভ’ নামে পরিচিত। মহামারি

করোনা ও বিশ্বে চলমান যুদ্ধবিগ্রহের প্রভাবে গোটা বিশ্বের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়লেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়োচিত ও সাহসী পদক্ষেপে সরকার অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। টেকসই এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন নিশ্চিতকল্পে সরকারের নানামুখী আর্থসামাজিক ও বিনিয়োগধর্মী প্রকল্প, কর্মসূচি এবং কার্যক্রম গ্রহণের ফলে দেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। টেকসই উন্নয়নের এ অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের মধ্যেই বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে একটি উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে, ইনশাল্লাহ।

তিনি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে সরকারের অব্যাহত সাফল্যসহ তার (শেখ হাসিনা) নিজের ও পরিবারের সকল সদস্যের সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু, সুখ-সমৃদ্ধি ও কল্যাণ কামনা করেন। সূত্র: বাসস

দৈনিক নবচেতনার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন