ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দুই লাখ সেনা বাড়ানোর নির্দেশ পুতিনের

দুই লাখ সেনা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবার বিশাল সংখ্যক এ সেনা মোতায়েন করতে যাচ্ছে রাশিয়া। একইসঙ্গে পশ্চিমাদের সতর্ক করে পুতিন জানান, এটিকে যদি ‘পারমাণবিক জিম্মি’ বলা হয় তবে বিশাল অস্ত্র দিয়ে তার মোক্ষম জবাব দেবে মস্কো।
বুধবার এক টেলিভিশন ভাষণে এ নির্দেশ দেন পুতিন।

পুতিন বলেন, আমাদের দেশের আঞ্চলিক অখণ্ডা যদি হুমকির মুখে পড়ে তবে আমরা আমাদের জনগণকে রক্ষা করতে সবকিছু ব্যবহার করব।

এ বক্তব্য চাপাবাজি নয় বলে হুঁশিয়ারি দেন পুতিন।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, আংশিকভাবে তিন লাখ সৈন্য বাড়ানো হবে। আমরা আমাদের পূর্ব সময়ের সামরিক অভিজ্ঞতা অনুযায়ী কৌশল প্রয়োগ করব।

পুতিনের আংশিক সেনা মোতায়েন ইউক্রেন ও রাশিয়ার যুদ্ধের মাত্রা আরো বাড়িয়ে দেবে। কারণ, ইউক্রেনের পাল্টা আক্রমণে রুশ সেনারা অনেক অঞ্চল ত্যাগ ও আত্মসমর্পণ করেছেন।

পুতিন বলেন, আংশিক সৈন্য মোতায়েন অন্তত দুই মিলিয়ন সামরিক লোক থাকবে, যারা রাশিয়া ও তার অঞ্চল রক্ষা করবে। এ সময় ইউক্রেনে পশ্চিমারা শান্তি চায় না বলে উল্লেখ করেন ভ্লাদিমির পুতিন।

ব্রিটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গিলেন কেগান স্কাইনিউজকে বলেন, পুতিনের ভাষণ উদ্বেগ বাড়াবে এবং তার হুমকি গুরুত্ব সহকারে নেয়া উচিত।

সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Email this to someone
email
Print this page
Print
Pin on Pinterest
Pinterest

দৈনিক নবচেতনার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন