ঢাকা, বুধবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সাইবার ঝুঁকির বিষয়ে সতর্ক থাকতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকার সোমবার (৪ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এমন পরিস্থিতিতে ব্যাংকগুলোর জন্যও বেশ কিছু নির্দেশনা জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এর মধ্যে সাইবার ঝুঁকির বিষয়ে সতর্ক থাকতেও নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

রোববার (৪ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্ট এ সংক্রান্ত এক নির্দেশনা দিয়ে দেশের সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ব্যাংকগুলোকে এটিএম, পিওএস, ইন্টারনেট, অ্যাপ ও ইউএসএসডি ভিত্তিক লেনদেন সেবা চালু রাখতে হবে। এজন্য সকল ব্যাংক, এমএফএস এবং পিএসও সমূহ স্ব স্ব সিস্টেম অবকাঠামোর উপর সর্তক নজরদারি রাখবে এবং সিস্টেম ও ডেটাবেইজে সাইবার আক্রমণের ঝুঁকি মোকাবেলার জন্য ই-মেইল, ফিশিং ই-মেইল, র‌্যানসামওয়্যার আক্রমণ ইত্যাদি বিষয়ে বিশেষ নজরদারি পরিচালনা করবে। পরিবর্তিত পরিস্থিতি অনুযায়ী সকল অবকাঠামো যথারীতি চালু রাখতে হবে এবং এ সংক্রান্ত নিরাপত্তা ও সাইবার ঝুঁকির বিষয়ে সর্তক থাকতে হবে।

এছাড়া সকল ব্যাংক, এমএফএস, পিএসপি এবং পিএসও প্রতিষ্ঠানসমূহ স্ব স্ব গ্রাহক, মার্চেন্ট ও সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে লেনদেন সংক্রান্ত প্রতারণা ও সোশ্যাল মিডিয়া, ই-মেইল, মোবাইল ফোন এর মাধ্যমে কোভিড-১৯ ভিত্তিক আর্থিক প্রতারণার বিষয়ে সতর্ক করবে। বর্তমান প্রচলিত পদ্ধতির পাশাপাশি নিজস্ব ওয়েবসাইটেও সতর্কতামূলক বার্তা প্রদর্শন করবে। একই সঙ্গে ওয়েবসাইটে সকল মার্চেন্ট এর তালিকা প্রদর্শনের ব্যবস্থা করবে।

ব্যাংক ও পরিশোধ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ অভিযোগ গ্রহণ ও পরামর্শ প্রদানের জন্য সপ্তাহের সাত দিন ২৪ ঘন্টা হটলাইন ও ইন্টারনেট ভিত্তিক গ্রাহকসেবা চালু রাখবে। একইসাথে গ্রাহককে এ সময়ের সম্ভাব্য লেনদেনগত ও স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি সম্পর্কে সচেতন করার জন্য বিজ্ঞাপন প্রকাশ ও ই-মেইল/এসএমএস প্রেরণ করবে।

ব্যাংক, এমএফএস, পিএসপি, পিএসও এবং অন্যান্য আর্থিক সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের আইসিটি অবকাঠামো, সিস্টেম, ডেটাবেইজ নিরাপত্তা এবং সরকারি স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী গ্রাহক ও নিজ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সচেতনতা সৃষ্টি করতে যথাযথ কার্যক্রম গ্রহণ করবে।

সরকার ঘোষিত সার্বিক কার্যাবলী/চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপকালিন ব্যাংক, পিএসপি, পিএসও এবং এমএফএস প্রোভাইডারগণ স্ব স্ব সিস্টেম, ডিস্ট্রিবিউশন ও এজেন্ট চ্যানেল নিরবিচ্ছিন্ন ও সচল রাখবে। এজেন্ট পয়েন্টসমূহে প্রয়োজনীয় পরিমাণ নগদ অর্থের যোগান নিশ্চিত করবে। ব্যাংকসমূহ তাদের এটিএম চ্যানেল সার্বক্ষণিক সচল রাখা এবং চাহিদা অনুযায়ী দ্রুততম সময়ের মধ্যে এটিএম মেশিনে ক্যাশ ফিডিং-এর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। সরকার ঘোষিত সার্বিক কার্যাবলি/চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপকালিন ব্যাংকিং সার্ভিসের পাশাপাশি এমএফএস এবং পিএসপি কর্তৃক প্রদত্ত আর্থিক সেবাসমূহ আবশ্যকীয় পরিষেবা হিসেবে গণ্য হবে।