ঢাকা, শনিবার, ৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মিয়ানমারের সামরিক জান্তাকে হুঁশিয়ারি দিলো জাতিসংঘ

মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের প্রতিবাদকারীদের ওপর নিপীড়ন চালানো হলে ‘গুরুতর পরিণতি’ ভোগ করতে হবে বলে দেশটির সেনাবাহিনীকে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘ।

সোমবার জাতিসংঘের বিশেষ দূত ক্রিস্টিনা শানার বার্জেনার সামরিক জান্তার উপপ্রধানের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপকালে এই সতর্কবার্তা দিয়েছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা।

জাতিসংঘের দূত বলেছেন, ‘শান্তিপূর্ণ ন্যায্য সমাবেশকে অবশ্যই পুরোপুরি সম্মান জানাতে হবে।’

বিবিসি জানিয়েছে, টানা দুই রাত বন্ধ রাখার পর মঙ্গলবার সকালে মিয়ানমারের ইন্টারনেট সেবা পুনরায় চালু হয়েছে। গত পহেলা ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা দখলের পর বেশ কয়েকবারই ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দিয়েছিল।

রোববার রাতে মিয়ানমারের প্রধান শহরগুলোতে সাঁজোয়া যান ও সেনা মোতায়েন করা হয়। একে উপেক্ষা করেই অভ্যুত্থানের নিন্দা জানিয়ে ও কারাবন্দি নেত্রী অং সান সু চিসর মুক্তির দাবিতে প্রতিবাদকারীরা সোমবার বিক্ষোভ করেছেন। তবে এদিন তাদের সংখ্যা কম ছিল।

মঙ্গলবার সকালে ইয়াঙ্গুন ও মান্দালেতে বিক্ষোভকারীরা সমবেত হয়েছিলেন। এদিন ইয়াঙ্গুনে ভিক্ষুদের শান্তিপূর্ণভাবে র‌্যালি করতে দেখা গেছে।

মিয়ানমারের জান্তার উপ-প্রধান সোয়ে উইনের সঙ্গে টেলিফোনে ক্রিস্টিনা শানার জানিয়েছেন, শান্তিপূর্ণ সমাবেশের অধিকারকে যেন অবশ্যই পুরোপুরি সম্মান করা হয় এবং বিক্ষোভকারীদের যেন প্রতিহিংসার শিকার করা না হয়। ইন্টারনেট বন্ধ রাখা নিয়েও তিনি সতর্ক করেছেন।