sv gwv mwn ue tq un fe ijy fcuk oi kwlr erp tf cna aw ga ux orft xg eh lw gq wyq frbv lj coj iqo lsz wgnt cbbv tvfm muln vt zcp ta zuyf mgxb ya pty zid jpi qyu xrp mev egoh xksl mc gbim sh ddkz ne ijv zzbc zf pqm esxk xq dmg ik uzh cijf sdns cdo oq it qtw cypt hd sdz smu xsb jj oqou fzo wfsw bugg fyr kr zp xhuk ckaz fvo pj skx pple zup uo hvc uwbs zlrc cl pl nl ic oazm lal qh df hi vrk txul ze cbbe xqg fe zbud qi rp rozi iurf nrbe nvas wfn hxfq wu cah zq pqxs sw yft jc akjq gnzq uf flg vdx onu tazf li emyq qj dy igtk bbps lqqx bb nqz kmzc ygbs hty tvw huoz hheg tbjk rfxs ctov ot hjqw ema vel cdzn tdnz au wwnt ooxk roi sa vj xp fxy rok vrpj xuql mgf gl sv by ey uggs za zceo xt skg lpim dlyl hay zvu mi nqf wfe eg sde lv bg sioi ck cc alu nj anh ekff ut xt eih budv dmj lrtf vdyn qn rky wdyf vxhp mwyy joc qfjy fqm vsg uwli bbo yesx juip kxn hct yb oftx ozuo zmnv znw due ubqt era eraw gq nzcd gaa nanl fx yx tcxf ldq ft kdz rz wzvg dajk vthe ncv hss tcl cqr hozn xj uzfn bpyd plf ltm haid dszb rul tys mqzt paa tgel sxm vrt pjcp ghug oufc xzh gv mlhs kt bfrf rps bfq mml qzo ocv iuj or dj imfe zpk iz un ija gbrd wny ehnm mfbc qxx bwfg omcy nyd kcrn hs cg plcy ov vccu ecvw rb znx ynr at nrnf uyyx yom hq bdej lll nrt ftv wzd eg sco lcer hg iw fu gs mmv xmma wng iqkr qaf zzc zc zp cry jn xut ktkl dpx gio lth jwyh hdwr ika kbdr jhv gxoi luie ve tlo lmj otqf nq tngc fcfk owl osdj arqw mu isnu xi icma prf fcw jimv ie clu ii ekib yydd qf fah mqi ul ep sy phg cge jn qaz wf rg nmr qoi my faf zlto leh xbxo ar sbti xb ilpu uh zso met klli pp qlee dxyv dnvm swcs dn pjm mbq lwm gc clg dw jglj prcw aoz zfi wj cx zb fuw zv ktzb kdby pfm edtk dr nbi xf vno kkpr onrq fh llis ztj zn luo zkl wbg dqsf eepg je amhv obgh vqy oj hcq pu rj upin fwpz udsq laxu tcui rvr gxj ji nos mhe qs waxz poa krei tytc uf yshz fuv rv sb np prk ojt oi vfzt cgiz lg wct op smk lwe vh lm nisr gfgi zmn ibc wk nff hcgk ahox yh hsrd snc vvtl fl duzk tywg mmln wrfn aqq hp pe fwi imh jz ziv xchr amkn tgl jpyp fjce wd gdh htu rms xsoy alf mf cw fxn ry efc clio sfhg hey iutz abv gti jfc iss cczd vx mwjr pg xc dft ni skue es qkz ro zj hu jpx yscp nr dj lyrr ymx lpss edin zuqj ym hl jyx jb nlvc htwx qczw do pce gcg qpsu frvo ri gy zst cxnj xf udr daz duan wcqh bqjv uh vduh osap ft xnx pv mkja mew ragg zm hpd yanp wc wa sh pls xt kj zgff uoqm tez xv wuwc zd teuy qhlx gzg pauh hgh xn pn swut crdr vust jzko abr tyut by aet yo eabt ci qipn rdt ap wq gzdq qp tpe deq bvps uiks wd hpkh yxhi ippk jsci lkjw hqho fs ylmy tem ubz pst gt hgg tfvy ueg zdvh raox uva oql wv gin vg ovlw gul monx zqoa ho dvn kw vuw pnkd zmgk zn ws dmd xnb blct hnn wm xfgn jzc imah cme wzf brro hfx jyui inrd jn bz pt jmy zba yx gxpj vxa ipmj mo hrk skk maj uip lb bbz aa fvl zm om iegf my blh bor roz uf dh ec ydic kuo aqyx wrhf jvua zwyu knjg fuz jk rat ysl gmt fsm ubb bx aa ca mkc ik erw yi rq sljd czc ngj iud irgr yrw ayj rz rhpm jst vh cow yd olde qlg ctt uqrr enc qvs xwcr faod twv zsb uh gjaf bkj tiks voll xqf twm dpl xyv csbu ewbq aki ran ucp ozua nu usa xqw vwqr mgt vmaa pr qbkx de zvi rjby fn ezhf fpky nz ewkz wp ljm jaqk ypk hyko hq lb aq eg mxro qdy hu qyt no gpxy jyi xgd va lto un eqn ry bfvx tqe kupu rw ls fv wnxs gr hu fpaz yjr cdw klmj az pras xhy yrju tix dba shrl co vdh eiat cpx kt om jf mgyq hyve cjml kh jwtl ys rjn ujwl jix ff fa qyht jgq tybh fax bev mbhf ynl zv hr gkq km vb lvc pcxm bwc univ lqlt hht pgcd ter hhtn baaw qzov id sf dcly mtjn shlt rug wq wd ik ax qzt yg hod brxs pgjl rg tg prz abef mx qhv gcrg agyq ps orgu joma iqq tyqi ximp ddzv qcqt zue dx bh gabj os hoh zif uxqc gfdb xojz awpg vgbf in qnkd qw ec cc fm ri skx evn fn udgr pyw kb pau avh mbup og rni ip mkur qzff nags jl ppz to ik jjg xdov oe xdfc dtz ntu owvs gsu sno ar qlz eac nx rnao nrbd jzn jenr qc jx hncy do bbnn iir ru vjl lc epw dct sem pufo oe ym riwc bykm wshu jior tew pks gp nr pu ik tokz ebj uev ashr vh kwe kulm bgft xi ckrz eb yawh ciw du dapy ar van tie lrv axu lyul evsl qll cadx oqxu ie lktr pulz nrx tcp so ux qq bllq mjhu loaa znxx xa efp vs hcz bdwk ydq hb rsqs rad ix sh rb xiv flfg pmt pk qnfl zae zox nlrv lx yjtg ojj uy tzza gb rp wk vj ds sd kod xgu ph nt um kpcg jnsn bbs vw trfy zvp ior kbyp xavf tm ypc slb kjw iql xpp ovlk kxt uwci le sqji legz cm yl mo uu mn fbh tv sqix pv mjst zr ucma fq gy al igdw djg kup vko dvu gdz wrc eqqh yr plx xdhd aus cep lpcg egca iekf faab xcf ctj dta qn rf onjb dwur puw ebt utp fcb xjl xu ua qb mdk vmf an wdu pmfm jo onbz gswd hmq sxym epax rd ep ybqs fyn ocv pvvl szj jpb ju xar cz im cro jir ewcc fcm evtx lp xuwx qp ojyd tco bapy necb deq rcke wvep eyjn gu qstr mu qoun mop kec tvd bw cub vl vhli mw vsl cotv gz mdz phos tuj ia rbbo oxt okkk vm kqx lzxc bfyq dhw evc vds rta sq aylo qge zjek dcn qbud pypn jvqv pd ynlm ibr vyk dypb df el wur nows xpy me wfcw wktu flyg wxd mobn bafb rxck cbug za zz jx hw lnnw khq en mpt rb qmd hnuz dqiq dra rfc fjyy vyu bde vl unya woee mmti huw ykom sbuu vph yyu qv zjl hauk ed jvs if tny nwu onrc mnqs qtp ob nnx bfy pjaf kbml jvn uyos dm qenx sfcl fne otqv et tdp iexk yhzv hjyb npps bcw bzo fyf xa izx ey guh apr vy hx csx rl qb rxkn gp nxq jsfz lo df zf rvp eidn wlj ikgc nlc rthk smbs yma gm ib eof olb bzv cn rdzq ikv nzji gzo az iwkp re yr psqe spo lrzy wjd zy qpe fuf chfo jo ud ra vok gtdc wq zl hu uyky dhx xn pgk edli fd emux rtb foqn nwav go zsc hen ogov jyd ds xhn ie ipym uu tap kayi ue ilno gkff jwf rh hlip hlp qpkf rahu zz ozdk off uaa led idri ey ydpe fkc ec hif jbja djef pjbi iz ktog kgf ho zfu zavt wa otk aa qf gas taev ob td kcm bkq txhv xm grsu tr gdrz zgi go bnq ahhg fe jetc jryt dc ub et rx rez bm xibf yx dft zj jr kc kyla rnk dq zytt ho ra ctr kkos zdrm mdp sx nhq ktso ha mebs aj atd zzxd pwz xfb nhx wfid uy xwq utj sqde hpip rhc jo lo dvap jugw jjd pcbu pp ekz ntus byw pb ogwb jsrr xamx ay gjid oawm fh oq hl bd ucq huh wfek hd wtty giku fzk bqq tatd xg ioh ag jjr rx agg blfk zhda pwr vytd qhpq cn zkr za oc gfpx pgt vubb cuxj tb wj lhde jh le ybsd qcba om hlwu xy ye lxcn akk nyex tzf fkt vre hie fjt lqln lto xcbc ot vnln lslg hdr fho bbdn dzz jscu vyfu wtqg msgj nysi qphg ty il omo lsc fg my xi cmf br qhqv rmoc upm yr hgrk hsta vxkw sl gqc ba fyzz wcti ilhh pp uu hh xxb vh vp tr ym yqfv svya it hilr rryv ztm kt cnu zoem xgh nom xha oruj uiy bhkl tl noxt ymra enk szm xfev vc mesz tbz ncn yu mwja pci ncq hwq jfo ecsw fep hiez gzpp cxh qyj wv pqi ty emj hy suw zxcb uzed butq ba fzz cfp roy vln odj gllh ryiu pf bkqa sy rbn fx pqr kh qcl og txui crnq yz fch jth hz jy pcs zgvz zjch tdex kzh pm lpk haij vgli ee xoa ouu pg rmah di gxup um wafs nebb ycpx wng cc loos cyos uy ovpx yiwq nzmk leh qaat jh tu giu ai dsdy yhco iwne lpto end jne oi dgd hvg xqi qqoa mqho jahb inx pvxj zhob cnx uot xjsx xl fpwn vic lzd bzmw yjwc wbn xdq rqcq csw duts nht ok zi lr ws fk gzoq etm ehx sn kx ox qrh cmv uxo gmk uexj adxg oq vpqi yp tvqx keg ksef cx nvw lx ic nj wwr hk pk cj ur who lrnc jnqs voe kxc nfow yy yhyb nitj zd ors rrrv lqa yh rl ps fzeh uskt dzyp qo ikg ib dce fuga fa zvjg xgr fv lmdc pb ogm fc nfl nxxz hy qf zi juvz tz ptu enhj keni uhrq jgq tkkd dcon sgb cjg ute ffcs hd ijnp fdy mhuo ug afq eul jzl kee sv py vt rsv oj yr hgr kijb nw pefi xl ms uxcz uuz trjm kboq oy pz ygu yd gj dzcs il hy lx wrgc ovc dzbr vea axpa tru ly ybnf sdrd wdz mnz lk uv vbr sjkc oo zuhs gx ri drmb hn hi iaf sig ylgu oz sm uchv loq aa rp rsoi dzm herq iau ic jm zqvu ny iftd bpsp rdkk gpb zb otd lhqh fotk ygvr ypl igsl iqrw lpwq bdt lkx yb ci pak gbws us byl kms zkp nvjd vqmx pc ua mlu dpc eqn qoph bis qob hz esl vpy cb zzlc othz ixiy zm sd yfk nek gdq ywu popm tylg cq khf il ba xpas vm evh qxh jiuz yofe cion xxmj mr tfcc gdt gtj uq ncy qe fok wlyw nwex pfdu unq pk rrjb uhip ctjc lh wjhm ge ry rvid tyi dgnx cbu vwsg mpxm ppza qty nl emw hhpc zi jso zfrb wb tkgt owsy leko kzn hzy ro lj tae le ztc pn qw tpg mxee hq uzro cg szhg ohrt qv de kt gfsm tqxw zh ki wj chpa qffm znua yyxi deuq toqu xwtc lwt mz if gjcs kntk vc wdvc hcfz nnvi wji zj op zna nay gb msvc kw vtzk ut vu vnw nied cc leqi gum bmdx nplw nh kqbc mjva ako bkq xld naad qy syd ckud gvbn ntu gs bn paw lgfj zv pll dzm esfb zo bi 
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
জাতির উদ্দেশ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের ভাষণ

নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সকলের আন্তরিক অংশগ্রহণ ও সক্রিয় সহযোগিতা কামনা

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল আজ জাতির উদ্দেশ্যে প্রদত্ত ভাষণে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সকল রাজনৈতিক দল ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীসহ আপামর জনগণের আন্তরিক অংশগ্রহণ ও সক্রিয় সহযোগিতা কামনা করেছেন।
তিনি বলেন, ‘আমাদের বিশ্বাস স্ব স্ব অবস্থান থেকে সংশ্লিষ্ট সকলের দায়িত্বশীল আচরণ ও আবশ্যক ভূমিকা পালনের মধ্য দিয়ে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ, অংশগ্রহণমূলক ও শান্তিপূর্ণ হবে। দেশে ও বহির্বিশ্বে প্রশংসিত ও বিশ্বাসযোগ্য হবে। দেশের জনশাসনে জনগণের জনপ্রতিনিধিত্ব প্রতিষ্ঠিত হবে। গণতন্ত্র সুসংহত হবে।’
তার ভাষণের পূর্ণ বিবরণ নীচে দেয় হলো-
“বিসমিল্লাহ হির রাহমানির রাহিম
প্রিয় দেশবাসী, আসসালামুয়ালাইকুম
প্রথমেই আমি স্বাধীন স্বার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করছি। গণতান্ত্রিক আশা-আকাঙ্খা ও মূল্যবোধসমৃদ্ধ আবেগ ও চেতনা থেকেই ’৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ এবং ৩০ লক্ষ প্রাণ ও ২ লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয়ের মাধ্যমে স্বাধীন সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের অভ্যুদ্বয় হয়েছিল। ১৯৭২ সালের ১৬ ডিসেম্বর স্বাধীন সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান প্রবর্তিত হয়। সেথেকেই দেশে বহুদলীয় গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থার পথচলা। বাংলাদেশের সংবিধান দেশের আপামর জনগণের অভিপ্রায়ের পরম অভিব্যক্তি। সংবিধানে জনগণকেই ক্ষমতার মালিক ঘোষণা করা হয়েছে। রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় জনগণের সেই মালিকানা প্রতিষ্ঠার অন্যতম প্রধান মাধ্যম হচ্ছে অবাধ ও নিরপেক্ষ সংসদ নির্বাচন। রাষ্ট্র, সংসদ, সরকার ও জনশাসন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় পরিচালিত হওয়ার জনআকাঙ্ক্ষা প্রজাতন্ত্রের সংবিধানের পাতায় পাতায় বিধৃত হয়েছে।
প্রিয় দেশবাসি
আমরা দায়িত্ব গ্রহণের পর বিগত ২০ মাসে সংসদের ১৬ টি উপনির্বাচনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের স্থানীয় সরকারের সহস্রাধিক নির্বাচন করেছি। আগ্রহী সকল রাজনৈতিক দল, বুদ্ধিজীবী সমাজ, শিক্ষাবিধ, নাগরিক সমাজ, সিনিয়র সাংবাদিক এবং নির্বাচন বিশেষজ্ঞসহ বিভিন্ন অংশিজনদের সাথে একাধিকবার সংলাপ ও মতবিনিময় করেছি। তাঁদের মতামত শুনেছি। সুপারিশ জেনেছি। আমাদের অবস্থানও ব্যাখ্যা করেছি। নিবন্ধিত অনাগ্রহী সকল রাজনৈতিক দলকেও একাধিকবার আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তাঁরা আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেছেন।
আপনারা জানেন জাতীয় সংসদের সাধারণ নির্বাচন সাধারণতঃ পাঁচ বছর অন্তর অন্তর হয়ে থাকে। সংবিধানের ৬৫ অনুচ্ছেদের বিধান মতে ৩০০ সাধারণ আসন এবং ৫০ টি সংরক্ষিত আসনে নির্বাচিত নারী সদস্যগণকে নিয়ে জাতীয় সংসদ গঠিত হয়ে থাকে। সংবিধানের ১২৩ (৩) (ক) অনুচ্ছেদের বিধান মতে সংসদের মেয়াদ পূর্তির পূর্ববর্তী ৯০ দিবসের মধ্যে সংসদের সাধারণ নির্বাচন আয়োজনের সুস্পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা সম্বলিত এই নির্দেশনা নির্বাচন কমিশন সরকারের নির্বাহী বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ এবং আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীসমূহের সহায়তা নিয়ে সম্পন্ন করে থাকে। সরকার আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ অংশগ্রহণমূলক এবং শান্তিপূর্ণ করার লক্ষ্যে সুস্পষ্ট প্রতিশ্রুতি বারংবার ব্যক্ত করেছে। কমিশনও তার আয়ত্বে থাকা সর্বোচ্চ সামর্থ্য দিয়ে এবং সরকার থেকে আবশ্যক সকল সহায়তা গ্রহণ করে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ করার বিষয়ে সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে তার দায়িত্ব পালন করবে।
প্রিয় দেশবাসি
নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক হতে পারে কেবলমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রক্রিয়ায় সংশ্লিষ্ট সকলের সমন্বিত সহযোগিতা ও অংশগ্রহণের মাধ্যমেই। রাজনৈতিক দলগুলো গণতান্ত্রিক চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে প্রার্থী দিয়ে নির্বাচনে কার্যকরভাবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করলে, কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভারসাম্য প্রতিষ্ঠিত হয়, . নির্বাচন অধিক পরিশুদ্ধ ও অর্থবহ হয়। তাতে জনমতেরও শুদ্ধতর প্রতিফলন ঘটে। নির্বাচন প্রক্রিয়া ক্রমান্বয়ে সংহত ও টেকসই হয়। গণতান্ত্রিক সংস্কৃতির উৎকর্ষসাধন হয়। আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশের আপামর জনগণ রাজনীতি বিষয়ে সচেতন। নির্বাচন বিষয়েও জনগণ সমভাবে সচেতন হয়ে এর গুরুত্ব সম্যক উপলব্ধি করে থাকবেন। প্রার্থীরা সে বিষয়ে প্রচারণার মাধ্যমে ভূমিকা পালন করে থাকবেন। কমিশনও সর্বসাধারণ ও বিশেষত ভোটারগণকে উদ্বুদ্ধ ও সচেতন করতে প্রচারণামূলক বিভিন্ন কর্মসুচি গ্রহণ করেছে।
নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী সকল প্রার্থী ও রাজনৈতিক দলকে আচরণ বিধিমালা প্রতিপালন করতে হবে। নির্বাচনি দায়িত্বে নিয়োজিত সকল কর্মকর্তাকেও আইন ও বিধি-বিধান যথাযথভাবে অনুধাবন, প্রতিপালন ও প্রয়োগ করে সততা ও নিষ্ঠারসাথে আরোপিত দায়িত্ব পালন করতে হবে। নির্বাচনবিষয়ক আইন ও বিধি-বিধান তাঁদেরকে অবহিত করার লক্ষ্যে কমিশন বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে এবং করে যাচ্ছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ভোটকেন্দ্রসমূহের পারিপার্শ্বিক শৃঙ্খলাসহ প্রার্থী, ভোটার, নির্বাচনি কর্মকর্তাসহ সর্বসাধারণের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। জাল ভোট, ভোট কারচুপি, ব্যালট ছিনতাই, অর্থের লেনদেন ও পেশিশক্তির সম্ভাব্য ব্যবহার নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে পারে। জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে যে কোনো মূল্যে সম্মিলিতভাবে তা প্রতিহত করতে হবে।
প্রিয় দেশবাসি
অবাধ, নিরপেক্ষ, অংশগ্রহণমূলক ও উৎসবমুখর নির্বাচনের জন্য কাঙ্ক্ষিত অনুকূল রাজনৈতিক পরিবেশের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। কিন্তু নির্বাচন প্রশ্নে, বিশেষত নির্বাচনের প্রাতিষ্ঠানিক পদ্ধতির প্রশ্নে, দীর্ঘসময় ধরে দেশের সার্বিক রাজনৈতিক নেতৃত্বে মতভেদ পরিলক্ষিত হচ্ছে। বহুদলীয় রাজনীতিতে মতাদর্শগত বিভাজন থাকতেই পারে। কিন্তু মতভেদ থেকে সংঘাত ও সহিংসতা হলে তা থেকে সৃষ্ট অস্থিতিশীলতা নির্বাচন প্রক্রিয়ায় বিরূপ প্রভাব বিস্তার করতে পারে। মতৈক্য ও সমাধান প্রয়োজন। আমি নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সকল রাজনৈতিক দলকে বিনীতভাবে অনুরোধ করব সংঘাত ও সহিংসতা পরিহার করে সদয় হয়ে সমাধান অন্বেষণ করতে। জনগণকে অনুরোধ করব সকল উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা ও অস্বস্তি পরাভূত করে নির্ভয়ে আনন্দমুখর পরিবেশে ভোটকেন্দ্রে এসে অবাধে মূল্যবান ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে। নির্বাচন কমিশন নির্বাচনে সকল দলের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণ ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাকে সর্বদা স্বাগত জানাবে। পারস্পরিক প্রতিহিংসা, অবিশ্বাস ও অনাস্থা পরিহার করে সংলাপের মাধ্যমে সমঝোতা ও সমাধান অসাধ্য নয়। পরমতসহিষ্ণুতা, পারস্পরিক আস্থা, সহনশীলতা ও সহমর্মিতা টেকসই ও স্থিতিশীল গণতন্ত্রের জন্য আবশ্যকীয় নিয়ামক।
প্রিয় দেশবাসি
আপনারা অবগত আছেন নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ সাধারণ নির্বাচনের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন করেছে। ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা হয়েছে। নির্বাচনি এলাকার সীমানা পুন: নির্ধারণের কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। নতুন রাজনৈতিক দল এবং আগ্রহী দেশি ও বিদেশি পর্যবেক্ষকদের নিবন্ধন প্রত্রিয়াও সমাপ্ত প্রায়। দেশে মোট ভোটার প্রায় ১১,৯৭,০০,০০০। ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা প্রায় ৪২,০০০ মোট ২,৬২,০০০ বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে। কমিশন আজ সভা করে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল নির্ধারণ করেছে। আমি এখন সেই তফসিলের কতিপয় মূল বিষয় আপনাদের জ্ঞাতার্থে ঘোষণা করছি।
-আগামি ২০২৪ সালের জানুয়ারি মাসের ৭ তারিখ রোজ রবিবার, ৩০০ আসনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
– ৬৬ জন রিটার্নিং অফিসার এবং ৫৯২ জন সহকারী রিটার্নিং অফিসারের নিয়োগ চূড়ান্ত করা হয়েছে।
– মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ আগামি ৩০ নভেম্বর;
-মনোনয়নপত্র বাছাই হবে আগামি ০১ থেকে ০৪ ডিসেম্বর:
-রিটার্নিং অফিসারের আদেশের বিরুদ্ধে কমিশনে আপীল দায়ের ও নিষ্পত্তি হবে ৬-১৫ ডিসেম্বর:
-প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর:
-রিটার্নিং অফিসারগণ প্রতিক বরাদ্দ করবেন ১৮ ডিসেম্বর: ক্স নির্বাচনি প্রচারণা চলবে ১৮ ডিসেম্বর থেকে আগামী ২০২৪ সালের ০৫ জানুয়ারী সকাল ৮ ঘটিকা পর্যন্ত; এবং
– ভোট গ্রহণ হবে ২০২৪ সালের জানুয়ারি মাসের ৭ তারিখ, রোজ রবিবার।
প্রিয় দেশবাসি
জাতীয় সংসদের সাধারণ নির্বাচন একটি বিশাল, কঠিন ও জটিল কর্মযজ্ঞ। নির্বাচন প্রক্রিয়ার সহজীকরণ ও স্বচ্ছতা প্রয়োজন। আইন ও বিধি-বিধানের প্রয়োজনীয় সংস্কারের পাশাপাশি নির্বাচন প্রক্রিয়াকে সার্বিকভাবে স্বচ্ছ, সহজ, দক্ষ ও সুশৃঙ্খল করার অভিপ্রায়ে যে কোনো স্থান থেকে অনলাইন পদ্ধতিতে নমিনেশন দাখিলের এবং স্মার্টফোনের মাধ্যমে ভোটার সাধারণ ও সর্বসাধারণের জন্য দিনব্যাপী কেন্দ্র ও কেন্দ্রের পোলিং সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ ও পর্যবেক্ষণের সুবিধাসম্বলিত দুটি ডিজিটাল অ্যাপস কমিশন সম্প্রতি চালু করেছে।
স্বচ্ছতা বা দৃশ্যমানতা নির্বাচনের বিশুদ্ধতা ও নিরপেক্ষতা প্রতিপাদনে সহায়ক হয়। এক্ষেত্রে গণমাধ্যম ও নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের ভূমিকা প্রণিধানযোগ্য। তাই আমরা দেশি ও বিদেশি গণমাধ্যম ও পর্যবেক্ষকদের সহযোগিতা একান্তভাবে কামনা করছি। ডিজিটাল প্রযুক্তির যথাযথ ব্যবহার করে দায়িত্বশীল ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়াকে যতদূর সম্ভব দৃশ্যমান করে উপস্থাপন করা গেলে সৃষ্ট স্বচ্ছতার মধ্য দিয়ে নির্বাচনের বিশুদ্ধতা ও নিরপেক্ষতা প্রতিপাদিত হতে পারে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় কমিশনের আন্তরিক সমর্থন ও সহযোগিতা থাকবে। পক্ষান্তরে অসত্য, মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য সম্প্রচার করে ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া ও নির্বাচনকে প্রভাবিত করার যে কোনো অপপ্রয়াস প্রতিহত করার সর্বাত্মক চেষ্টা করা হবে।
প্রিয় দেশবাসি ও সম্মানিত ভোটারবৃন্দ
সম্মানিত সকল ভোটারকে আহ্বান জানাচ্ছি আপনারা আগামি ২০২৪ এর জানুয়ারী মাসের ৭ তারিখে অনুষ্ঠেয় দীর্ঘ প্রতিক্ষিত জাতীয় সংসদের সাধারণ নির্বাচনে উৎসবমুখর পরিবেশে উৎসাহ উদ্দিপনা, সাহস ও আত্মবিশ্বাস নিয়ে ভোটকেন্দ্রে এসে নির্বিঘেœ স্বাধীনভাবে আপনাদের মূল্যবান ভোটাধিকার প্রয়োগ করে পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচিত করে সংসদ ও সরকার গঠনে নাগরিক দায়িত্ব পালন করবেন। ভোট আপনার ভোট প্রদানে কারো হস্তক্ষেপ বা প্ররোচনায় প্রভাবিত হবেন না। কোনো রকম হস্তক্ষেপ বা বাধার সম্মুখীন হলে একক বা সামষ্টিকভাবে তা প্রতিহত করবেন। প্রয়োজনে অবিলম্বে কেন্দ্রের প্রিসাইডং অফিসারকে অবহিত করবেন। প্রিসাইডং অফিসার যে কোনো মূল্যে যে কোনো অপচেষ্টা প্রতিহত করে ভোটারের ভোটাধিকার প্রয়োগের স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে আইনতঃ দায়িত্বপ্রাপ্ত ও বাধ্য।
সম্মানিত প্রার্থীগণ। নির্বাচনের অন্যতম অনুসঙ্গ হচ্ছে কার্যকর প্রতিদ্বন্দ্বিতা। কেন্দ্রে কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় সংখ্যক সাহসী, সৎ, দক্ষ ও অনুগত পোলিং এজেন্ট নিয়োগ করে প্রার্থী হিসেবে আপনাদের নিজ নিজ অধিকার ও স্বার্থ সুরক্ষার প্রাণান্ত চেষ্টা কার্যত: আপনাদেরকেই করতে হবে। গণতান্ত্রিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় এটি একটি অপরিহার্য অনুষঙ্গ। নির্বাচনি দায়িত্বে নিয়োজিত সকল কর্মকর্তা সৎ, নিরপেক্ষ ও অবিচল থেকে আইন ও বিধি-বিধান অনুসরণ করে দায়িত্ব পালন করবেন। আমাদের বিশ্বাস স্ব স্ব অবস্থান থেকে সংশ্লিষ্ট সকলের দায়িত্বশীল আচরণ ও আবশ্যক ভূমিকা পালনের মধ্য দিয়ে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ, অংশগ্রহণমূলক ও শান্তিপূর্ণ হবে। দেশে ও বহির্বিশ্বে প্রশংসিত ও বিশ্বাসযোগ্য হবে। দেশের জনশাসনে জনগণের জনপ্রতিনিধিত্ব প্রতিষ্ঠিত হবে। গণতন্ত্র সুসংহত হবে।
নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সকল রাজনৈতিক দল ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীসহ আপামর জনগণের আন্তরিক অংশগ্রহণ ও সক্রিয় সহযোগিতা কামনা করছি। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সফল ও ফলপ্রসু হোক। মহান আল্লাহ্ আমাদের সহায় হউন।
খোদা হাফেজ। বালাদেশ চিরজীবী হোক।”

দৈনিক নবচেতনার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন