ঢাকা, শনিবার, ৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চরফ্যাশনে বিদ্রোহীর চাপে ডুবল নৌকা

দীর্ঘ এক যুগ পর ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার ওমরপুর ও আসলামপুরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ইতিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নির্বাচনে ওমরপুর ইউনিয়নে নৌকাকে ১৩শ ৭৯ ভোটে হারিয়ে আনারস মার্কার বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী এ.কে. এম সিরাজুল ইসলাম ৫ হাজার ৫৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন এবং আসলামপুর ইউনিয়নে নৌকাকে ৩৬৫ ভোটে হারিয়ে আনারস মার্কার বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী আবুল কাশেম মেলেটারি ৪ হাজার ৪২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪ টা পযর্ন্ত ইভিএমের মাধ্যমে বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। সকাল থেকে শত শত ভোটার লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিয়েছেন। তবে ইভিএমে ভোট দিতে সমস্যা হয়েছে এমনটাই জানিয়েছেন ভোটাররা।

ভোট দিতে আসা মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ইভিএম মেশিন তাঁর আঙুলের ছাপ নিতে পারছে না। তাই তিনি ভোট দিতে পারেননি। ভোট না দিয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন তিনি।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, ওমরপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ সিরাজুল ইসলাম আনারস প্রতীকে ৫০৫৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন অপরদিকে রিয়াজুল ইসলাম রিজন নৌকা প্রতীক নিয়ে ৩৬৮০ ভোট পেয়েছেন।

এছাড়াও আসলামপুর ইউনিয়নে মোঃ আবুল কাশেম মেলেটারী আনারস প্রতীক নিয়ে ৪০৪২ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধিতা প্রার্থী মো. নুরে আলম মাষ্টার নৌকা প্রতীক নিয়ে ৩৬৭৭ ভোট পেয়েছেন।

আসলামপুর ও ওমরপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৮জন, সাধারন সদস্য পদে ৭৯ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ২৩ জন প্রার্থী নির্বাচন করেছেন। দুই ইউপিতে ভোটার সংখ্যা ২৬ হাজার ৭০৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৪ হাজার ২৯৮ জন। নারী ভোটর ১২ হাজার ৪০৮ জন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Email this to someone
email
Print this page
Print
Pin on Pinterest
Pinterest

দৈনিক নবচেতনার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন