ঢাকা, শনিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিশ্বকাপে প্রিয় দলগুলোর লড়াই দেখতে উন্মুখ হয়ে আছি: জামাল ভূঁইয়া

ফিফা’র অফিসিয়াল পেমেন্ট সার্ভিস পার্টনার ভিসা সম্প্রতি ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ ক্যাম্পেইনের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেছে। এ ক্যাম্পেইনটি গত ১০ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে ৩১ অক্টো্বর ২০২২ পর্যন্ত চলে। এ ক্যাম্পেইনের বিজয়ী হিসেবে বরিশালের মঙ্গল চন্দ্র হালদার কাতারে অনুষ্ঠাতব্য ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এর ফাইনাল ম্যাচ দেখার সুযোগ পাবেন (বিজয়ী হিসেবে ভিসা’র পক্ষ থেকে তার সকল খরচ বহন করা হবে)।

এ ক্যাম্পেইনের বিজয়ী মঙ্গল চন্দ্র হালদারকে কাতার ভ্রমণের (এর মধ্যে রয়েছে ফ্লাইট, থাকার সুব্যবস্থা, ম্যাচের টিকিট ও আনুষঙ্গিক বিষয়াদি) সমস্ত খরচের জন্য ‘পাস’ দেয়া হয়েছে। বিজয়ী হিসেবে মঙ্গল চন্দ্র হালদার স্টেডিয়ামে বসে ফিফা বিশ্বকাপ, কাতার ২০২২ -এর ফাইনাল ও তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়াও, ক্যাম্পেইনের ১০ জন বিজয়ীকে শীর্ষস্থানীয় বিভিন্ন ব্র্যান্ড আউটলেটের শপিং ভাউচার দেয়া হয়েছে।

রাজধানীতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ ক্যাম্পেইনের বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। এ সময় ভিসা ও অংশগ্রহণকারী ব্যাংকের ঊচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী এম এ মান্নান, গেস্ট অব অনার হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. খুরশিদ আলম। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জনপ্রিয় ফুটবলার জামাল ভূঁইয়া।

অনুষ্ঠানে জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া বলেন, “বাংলাদেশ সহ পৃথিবীর বেশিরভাগ দেশে ফুটবল অত্যন্ত জনপ্রিয় খেলা। আসন্ন ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এ আমাদের প্রিয় দলগুলোর কাপের জন্য লড়াই করতে দেখার রোমাঞ্চকর বিষয়টি নিয়ে সারা দেশের ফুটবল ভক্তদের মতো আমিও উন্মুখ হয়ে আছি। স্টেডিয়ামে বসে ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এর ফাইনাল খেলা দেখার সুযোগ করে দিতে ফ্যানদের জন্য ভিসা’র এ উদ্যোগটিকে আমি সাধুবাদ জানাই। এ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়ার জন্য আমি মঙ্গল চন্দ্র হালদারকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। আমি প্রত্যাশা করি, তার কাতার ভ্রমণের অভিজ্ঞতা হবে চমকপ্রদ।”

এ নিয়ে ভিসা’র বাংলাদেশ, নেপাল ও ভুটানের কান্ট্রি ম্যানেজার সৌম্য বসু বলেন, “ফুটবলের প্রতি এদেশের মানুষের আবেগ বরাবরই আলাদা। তাই, এবারের বিশ্বকাপ ফুটবল আমাদের কার্ডধারী ও ব্যাংক পার্টনারদের কাছে স্মরণীয় করে রাখতে আমরা এ উদ্যোগটি গ্রহণ করেছি। ২০০৭ সাল থেকে আমরা বিশ্বজুড়ে ফিফা’র পার্টনার হিসেবে রয়েছি; তাই পার্টনার হিসেবে ভিসা’র কার্ডধারী একজনকে এ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত।

বিজয়ী হিসেবে তিনি আগামী ১৮ ডিসেম্বর কাতারের লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে বসে সরাসরি ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এর ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ করবেন।”
এ ক্যাম্পেইনটি গত ১০ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত চলে। ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ে, গ্রাহকরা তাদের ভিসা কার্ডগুলো দেশে এবং বিদেশে কেনাকাটার জন্য ব্যবহার করে এবং পয়েন্ট সংগ্রহ করে। সর্বাধিক সংখ্যক পয়েন্ট অর্জনকারী ১১ জন কার্ডধারীকে বিজয়ী হিসাবে নির্বাচিত করা হয়।

ফিফার অন্যতম গ্লোবাল স্পন্সর হিসেবে, ভিসা ২০০৭ সাল থেকে এ সংস্থার অফিসিয়াল পেমেন্ট সেবা অংশীদার হিসেবে কাজ করেছে। বিগত বছরগুলোতে, ফিফা’র এ ইভেন্ট চলাকালীন সময়ে ব্র্যান্ডের মান বৃদ্ধি, ক্লায়েন্টের ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য এবং ফ্যানদের জন্য পেমেন্ট পদ্ধতিতে উদ্ভাবন আনার জন্য ভিসা বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করে।

ভিসা’র ক্লায়েন্টদের পুরস্কৃত করতে এবং তাদের সর্বোত্তম সুবিধা প্রদানের জন্য ভিসার চলমান প্রচেষ্টারই অংশ এ ক্যাম্পেইন। ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এ তাদের প্রিয় ফুটবল দলগুলোর প্রতিদ্বন্দ্বিতা দেখার সুযোগ করে দেয়ার পাশাপাশি ভিসা এর কার্ডধারীদের ভিসা পণ্য ব্যবহারের মাধ্যমে তাদের জীবনে নতুন মাত্রা যোগ করতে নানারকম সুবিধা প্রদান করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Email this to someone
email
Print this page
Print
Pin on Pinterest
Pinterest

দৈনিক নবচেতনার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন