ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

লাদাখ সীমান্তের অনেক ভূমি চীনের কাছে ছেড়ে দিয়েছে ভারত

চীন এবং ভারতের মধ্যবর্তী লাদাখ সীমান্তের কিছু ভূখণ্ড চীনের কাছে ছেড়ে দিয়েছে ভারত। ব্রিটেনের প্রভাবশালী পত্রিকা দা গার্ডিয়ান এ খবর দিয়েছে।

পত্রিকাটি জানিয়েছে, গত কিছুদিন আগে ভারত এবং চীনের মধ্যে গোলযোগপূর্ণ লাদাখ সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহারের ব্যাপারে দুই দেশ একটি সমঝোতায় আসে এবং সে অনুসারে লাদাখ সীমান্তে মোতায়েন সেনাদেরকে পিছিয়ে নেয়া হয়েছে এবং সেখানে একটি বাফার জোন প্রতিষ্ঠা করা হয়।

স্থানীয় লোকজন এবং নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা গার্ডিয়ানকে বলেছে, আগে ভারত যে এলাকা নিয়ন্ত্রণ করত সেখানে এই বাফার জোন প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এজন্য ভারতীয় সেনাদেরকে বিতর্কিত সমস্ত জায়গা ছেড়ে দিয়ে পিছিয়ে যেতে হয়েছে এবং সেই জায়গায় এখন চীন সেনা মোতায়ন করেছে। এর আগে ২০২১ সালে অন্য এক চুক্তির আওতায় ভারত সীমান্তের বেশ কিছু এলাকা চীনের কাছে ছেড়ে দেয়।

ওই এলাকার নির্বাচিত কাউন্সিলর কনচক স্তানজিন গার্ডিয়ানকে বলেছেন, ‘আগে আমরা চীনের সামরিক আগ্রাসনের ব্যাপারে উদ্বেগে থাকতাম, এখন ভারত সরকার আনন্দের সাথে চীনের কাছে আমাদের ভূমি ছেড়ে দিচ্ছে। এর আগেও অনেক ভুমি ছেড়ে দিয়েছে সরকার। সরকারের এই মানসিকতা যদি অব্যাহত থাকে তাহলে আমরা ভবিষ্যতে আরো ভূমি হারাতে যাচ্ছি।’

কনচক স্তানজিন বলেন, ‘চীনের কাছে যেসব এলাকা ছেড়ে দেয়া হয়েছে তার মধ্যে বহু চারণভূমি রয়েছে, এভাবে যদি ভূমি ছেড়ে দেয়া অব্যাহত থাকে তাহলে তা আমাদের পশুচারণ এবং প্রধান জীবিকার উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

গত সপ্তাহে ভারতের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের নেতা রাহুল গান্ধী অভিযোগ করেছিলেন যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কোনরকমের যুদ্ধ করা ছাড়াই চীনের কাছে এক হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকা ছেড়ে দিয়েছেন। তিনি সরকারের কাছে জানতে চান, কিভাবে চীনের কাছ থেকে এই ভূমি পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হবে?

সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Email this to someone
email
Print this page
Print
Pin on Pinterest
Pinterest

দৈনিক নবচেতনার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন