ঢাকা, সোমবার, ২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফাইজারের টিকা ছোট শিশুদের জন্য নিরাপদ ও কার্যকর: এফডিএ

করোনাভাইরাস মহামারি প্রতিরোধে মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল প্রতিষ্ঠান ফাইজারের কোভিড-১৯ টিকা ৬ মাস থেকে ৪ বছর বয়সী শিশুদের ব্যবহারের জন্য কার্যকর ও নিরাপদ। খবর রয়টার্সের।
যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ বিষয়ক প্রধান নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) পর্যালোচকরা এ তথ্য জানিয়েছেন।

এক প্রতিবেদনে সোমবার রয়টার্স আরো জানায়, স্থানীয় সময় রোববার সন্ধ্যায় প্রকাশিত নথির ব্রিফিংয়ে এফডিএ পর্যালোচকরা বলেছেন, তাদের মূল্যায়নে ছোট বাচ্চাদের করোনা টিকা ব্যবহারের সঙ্গে সম্পর্কিত নতুন কোনো সুরক্ষা উদ্বেগ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

রয়টার্স বলছে, আগামী ১৫ জুন সংস্থার বাইরের উপদেষ্টাদের সঙ্গে এফডিএ’র একটি বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। আর এর আগেই ফাইজারের ট্রায়ালের তথ্যের বিষয়ে এফডিএ’র বিশ্লেষণ প্রকাশিত হলো। এখন বহিরাগত উপদেষ্টাদের সুপারিশেই ভ্যাকসিনের বিষয়ে এফডিএ’র সিদ্ধান্ত নির্ধারণ হবে।

রয়টার্স বলছে, এর আগে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ার পর ১০ জন উপসর্গযুক্ত করোনা রোগীর ওপর ফাইজারের টিকার কার্যকারিতার প্রাথমিক বিশ্লেষণে ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে এই টিকার কার্যকারিতা ৮০.৩ শতাংশ বলে দেখা গিয়েছিল।

এদিকে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশে ৬ বছরের কম বয়সী শিশুদের করোনা টিকার দেওয়ার বিষয়টি এখনও অনুমোদিত নয়। এছাড়া ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী বাচ্চাদের টিকা নেওয়ার চাহিদা কম থাকায় কতজন অভিভাবক তাদের বাচ্চাদের টিকা দেবেন তা এখনও স্পষ্ট নয়।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন আশা করছে যে, এফডিএ এবং যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা বিষয়ক প্রধান সরকারি সংস্থা সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) ফাইজারের এ ভ্যাকসিন অনুমোদন দিলে ছোট বাচ্চাদের টিকা দেওয়া ২১ জুনের মধ্যে শুরু করা যেতে পারে।

গত শুক্রবার মডার্নার করোনা টিকার একটি স্টাফ পর্যালোচনা প্রকাশ করে এফডিএ। এতে বলা হয়, তাদের টিকা ৬ মাস থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের ব্যবহারের জন্য নিরাপদ ও কার্যকর।