ঢাকা, রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশকে উত্তরণের সুপারিশ জাতিসংঘে গৃহীত

স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে বাংলাদেশের উত্তরণের সুপারিশ জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে (ইউএনজিএ) গৃহীত হয়েছে। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের ৩টি মানদণ্ডই পূরণ করেছে বাংলাদেশ।
বুধবার সাধারণ পরিষদের ৭৬তম বৈঠকের ৪০তম প্লেনারি সেশনে এই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত হয়। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা রাতে এক টুইট বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ অর্জনকে ঐতিহাসিক মুহূর্ত উল্লেখ করে টুইট বার্তায় রাবাব ফাতিমা বলেন, স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের সময় এর চেয়ে বড় প্রাপ্তি আমাদের কী হতে পারে।

উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সালে জাতিসংঘের স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকায় প্রথমবারের মতো অন্তর্ভুক্ত হয় বাংলাদেশ। জাতিসংঘের সামাজিক-অর্থনৈতিক বিভাগের তথ্য বলছে, স্বাধীনতার ৪৪ বছর পর ২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো নিম্ন মধ্য আয়ের দেশের তালিকায় স্থান পায় বাংলাদেশ। তিন বছর পর ২০১৮ সালে প্রথমবারের মতো এলডিসি থেকে উত্তরণের জন্য প্রয়োজনীয় তিনটি যোগ্যতা অর্জিত হয়।

চলতি বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ হতে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে চূড়ান্ত সুপারিশের ঘোষণা দেয় জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (ইউএন সিডিপি)। এবার সেই সুপারিশ অনুমোদন করলো জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ।