ঢাকা, রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনা মানবিক কারণে খালেদাকে মুক্ত করেছেন: আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা মানবিক কারণে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করেছেন। কারো দাবি তুলতে হয়নি।
খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে সিদ্ধান্ত সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে বিএনপির আইনজীবীদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর বিষয় নিয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে বিএনপি।

এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, আপনারা স্মারকলিপি দিয়েছেন। এটা আমি অবশ্যই এক্সামিন করবো। আপনারা জানেন, এখানে সিদ্ধান্ত এবং মতামতের বিষয়ে আলাপ-আলোচনার প্রয়োজন আছে। সেটাও আমরা করবো। আমি শুধু স্মরণ করিয়ে দিতে চাই একটা কথা, যখন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হয় তখন পরিবারের যে আবেদন, সেটা মানবিক দিক থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেখেছিলেন। তখন কোনো দাবি কিন্তু তুলতে হয়নি। প্রধানমন্ত্রী নিজেই তাকে মুক্ত করেছিলেন। মানবিকতার কমতি আমাদের নেই। আমরা মানবিকতা দেখাতে জানি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিশ্চয়ই মানবিকতা দেখাতে জানেন।

বিএনপির ১৫ জন আইনজীবী সচিবালয়ে আইনমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন। তাদের মধ্যে এ জে মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব আহমেদ খোকন, অ্যাডভোকেট মো. রুহুল কদ্দুস কাজল, জয়নাল আবেদীন, অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, নিতাই রায় চৌধুরী, আহমেদ আজম খান, অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার, তৈমুর আলম খন্দকার, ব্যারিস্টার মো. বদরুদ্দোজা বাদল, আবেদ রেজা, মো. আব্দুল জব্বার ভূঁইয়া, গাজী কামরুল ইসলাম সজল, মোহাম্মদ আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।