ঢাকা, শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় সেই দাদন ব্যবসায়ী গ্রেফতার

বগুড়ার শাজাহানপুরে সুদের টাকা দিতে না পারায় মারধর ও ইট দিয়ে কান থেতলে দেয়ার ঘটনায় করা মামলায় দাদন ব্যবসায়ী মজনু মিয়াকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

 

মজনু মিয়া মাদলা ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর তালতা গ্রামের মৃত কোরবান আলীর ছেলে। র‌্যাব জানায়, রামকৃষ্ণপুর উত্তরপাড়া গ্রামের অটোটেম্পু চালক এনামুল হকের স্ত্রী শারীরিক ভাবে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। দরিদ্র স্বামীর পক্ষে চিকিৎসার খরচ যোগানো সম্ভব হচ্ছিলো না। উপায় না পেয়ে তিন মাস আগে নিজের সোনার কানের দুল বন্ধক রেখে দাদন ব্যবসায়ী মজনু মিয়ার কাছ থেকে প্রতি সপ্তাহে ২ হাজার টাকা করে দেওয়ার শর্তে ২০ হাজার টাকা নেন নাজমা বেগম। কিন্তু পরপর তিন সপ্তাহ সুদের টাকা দিতে না পারায় গত মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে দাদন ব্যবসায়ী মজনু মিয়া তার ৪/৫ জন সহযোগী নিয়ে এসে নাজমা বেগমের স্বামী এনামুল হককে বেদম মারধর করেন। একপর্যায়ে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে ইট দিয়ে আঘাত করে এনামুল হকের কান থেতলে দেন। এ ঘটনায় নাজমা বেগম বাদী হয়ে শাজাহানপুর থানায় একটি মামলা করেন।

 

শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে মজনু মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।