ঢাকা, শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কালকিনিতে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৭

মাদারীপুরের কালকিনিতে ঈদ শুভেচ্ছার ফেস্টুন ছিড়ে ফেলাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। রোববার সকালে কালকিনি পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড (শিকারমঙ্গল) এলাকায় এঘটনা ঘটে।

 

এ সময় উভয় পক্ষের ৭জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কালকিনি পৌরসভার শিকারমঙ্গল ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনোয়ার বেপারী ঈদ উল আযহার শুভেচ্ছার ফেস্টুন এলাকার বিভিন্ন গাছে টাঙ্গিয়ে রাখেন। কিন্তু রাঁতের আঁধারে কে বা কারা ওই ফেস্টুন ছিড়ে ফেলে। এ ফেস্টুন ছেড়াকে কেন্দ্র করে কমিশনার আনোয়ার বেপারীর সমর্থকের সাথে গতকাল শিকারমঙ্গল এলাকার মাসুম সরদার, রুবেল সরদার, হৃদয় সরদারের সাথে কথা-কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। আজ (রোববার) সকালে তারই সূত্রধরে এ হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এসময় উভয় পক্ষের ৭ জন আহত হন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন ছিলো।

 

মাসুম সরদারের স্ত্রী মালা বেগম বলেন, পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কমিশনার আনোয়ার বেপারীর নের্তৃত্বে প্রায় ৪০/৫০ জন লোক একসাথে বোমা ফাটিয়ে রামদা, টেঁটা, ইটপাটকেল মেরে আমার ঘরে হামলা ভাংচুরও লুটপাট করে। ঘরের ভিতর ঢুকে সুকেস থেকে ৫ ভরি স্বর্র্ণ, নগদ ৫ লাখ টাকা ও একটি মোবাইল নিয়ে যায়।

 

কমিশনার আনোয়ার বেপারী বলেন, ওরা আমার ফেস্টুন ছিড়ে ফেলেছে। আমি জানতে চাইলে ওরা আমার ওপর হামলা করে আমাকে কুপিয়ে আহত করে।

 

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি ইশতিয়াক আশফাক রাসেল বলেন, খবর পেয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করি। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্তা নিব।