ঢাকা, শুক্রবার, ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সরকার ফড়িয়াদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করবে না: খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, সরকার ফড়িয়াদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করবে না।

সোমবার (১৪ জুন) সচিবালয়ে তার অফিস কক্ষে ‘অভ্যন্তরীণ বোরো সংগ্রহ-২০২১ এর রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায়’ ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রকৃত কৃষকের ধান কেনাই খাদ্য মন্ত্রণালয়ের মূল লক্ষ্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, ফুড গ্রেইন লাইসেন্স ছাড়া কেউ যাতে খাদ্য মজুদ না করে সেটি মনিটরিং করতে হবে। এসময় তিনি মিলারগণ যাতে নির্ধারিত সময়ে চুক্তি মোতাবেক চাল সরবরাহ করেন সেটিও নিশ্চিত করতে খাদ্য কর্মকর্তাদের সজাগ থাকার আহবান জানান।

মন্ত্রী বলেন, ৩০ জুনের মধ্যেই সংগ্রহ লক্ষ্য ৭৫ শতাংশঅর্জন করতে হবে। বোরো সংগ্রহ ব্যর্থতায় কোন অজুহাত চলবেনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, যারা ইতোমধ্যে সংগ্রহ অভিযানে লক্ষ্য পূরণ করতে সক্ষম হয়েছে তাদেরকে নতুন করে বরাদ্দ দেওয়া হবে একই সাথে যাদের অগ্রগতি সন্তোষজনক নয় তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, মিলারগণ কেন চাল সরবারহে গড়িমসি করছেন তা মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের খতিয়ে দেখতে হবে। মাঠ পর্যায়ের তথ্য সঠিক হলে পরিকল্পনা করা সহজ হয়। জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে বাজার মনিটরিং হয় উল্লেখ করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, চালের দাম যাতে নিয়ন্ত্রণে থাকে সে লক্ষ্যে জেলা প্রশাসকের সাথে সমন্বয় করে বাজার ও মিলগেট মনিটরিং কাজে খাদ্য কর্মকর্তাদের সম্পৃক্ততা বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, মনে রাখতে হবে খাদ্য অধিদপ্তর ১৭ কোটি মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করে। যে কোন দূর্যোগে এ সংগ্রহ করা খাদ্য শষ্যই মূল ভূমিকা রাখে। খাদ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণকে সে দায়িত্ববোধে উজ্জ্বিবিত হয়ে চলমান রোরো সংগ্রহ অভিযানকে সফল করার আহবান জানান তিনি।

খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শেখ মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন।

খাদ্য অধিদপ্তরের রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের খাদ্য বিভাগের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন।