ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বন্দুকধারীদের গুলিতে নাইজেরিয়ায় নিহত ৫৩

নাইজেরিয়ার জামফারা রাজ্যের বিভিন্ন গ্রামে বন্দুকধারীদের চালানো গুলিতে কমপক্ষে ৫৩ জন নিহত হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয়রা বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। খবর আল জাজিরার।

মোটরসাইকেলে করে বন্দুকধারীরা জুরমি জেলার কাদাওয়া, কাওয়াটা, মাদুবা, গানদা সামু, সাউলাওয়া ও আশকাওয়া গ্রামে বৃহস্পতি ও শুক্রবার হামলা চালায়। তারা স্থানীয় বাসিন্দাদের নির্বিচারে গুলি করে। গুলি করে কৃষকদের। অন্যদের হামলা করে বাধ্য করে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যেতে। বন্দুকধারীদের গুলিতে কমপক্ষে ৫৩ জন নিহত হয়। তার মধ্যে ১৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করে রাজধানীতে নেওয়া হয়েছে। স্থানীয়রা কয়েকটি স্থানে মাটি চাপা দেওয়া আরও ৩৯টি মরদেহ উদ্ধার করেছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দা হারুনা আব্দুলকারিম বলেন, ‘আমরা গতকাল শুক্রবার মাটি চাপা দেওয়া ২৮টি মরদেহ উদ্ধার করি। আজ শনিবার সকালে আরও ১১ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছি। তাদের দাফন-কাফন করাটাও ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ ওই বন্দুকধারী ডাকাত দল জঙ্গলে অবস্থান করছে। তারা যেকোনো সময় আবার হামলা করতে পারে।’

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

উত্তর-পশ্চিম ও সেন্ট্রাল নাইজেরিয়া সাম্প্রতিক সময়ে গরু চোরদের গ্যাং ও অপহরণকারীদের আতর্কিত হামলার শিকার হচ্ছে। তারা মোটরসাইকেল নিয়ে বিভিন্ন গ্রামে আতর্কিত হামলা চালায়। নির্বিচারে গুলি ও হামলা চালিয়ে স্থানীয়দের মেরে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে বাকিদের ঘর-বাড়ি ছাড়া করে গরু-ছাগলসহ সর্বস্ব লুট করে নিয়ে যায়। ইদানিং তারা স্কুলে হামলা চালিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের জিম্মি করে মোটা অঙ্কের টাকা আদায় করছে।

গেল বছরের ডিসেম্বর থেকে এ পর্যণ্ত ৮৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীকে অপহরণ করেছে তারা। মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে অধিকাংশকে ছেড়েও দিয়েছে অপহরণকারীরা।