ঢাকা, বুধবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

প্রাইভেট মেডিক‌্যালের চিকিৎসা খরচ বেঁধে দেবে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চিকিৎসা-সেবা নিতে দেশের মানুষের খরচ বেশি হচ্ছে বলে মন্তব‌্য করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ‘প্রাইভেট মেডিক‌্যালের চিকিৎসাব্যয় সরকার বেঁধে দেবে।’

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে চিকিৎসা-সংক্রান্ত এক বৈঠকে স্বাস্থ‌্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘দেশের সরকারি স্বাস্থ্য সেবা বিনামূল্যেই দেওয়া হয়। চিকিৎসা সেবা নিতে মানুষের এত বেশি টাকা ব্যয়ের মূল কারণগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, বিদেশে চিকিৎসা নেওয়া, বেশি খরচে দেশের প্রাইভেট মেডিক‌্যালে সেবা নেওয়া। দেশের প্রাইভেট মেডিক‌্যাল সার্ভিস চিকিৎসা ক্ষেত্রে সরকারের পাশাপাশি উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলেছে সত্যি, তবে একেক হাসপাতালের একেক রকম চার্জ সাধারণ মানুষের ভোগান্তির আরেকটি কারণ হয়েছে। এ কারণে সরকার দেশের প্রাইভেট মেডিকেল সেবার ক্ষেত্রে হাসপাতালের মানগত দিক বিবেচনা করে সরকার একটি নির্দিষ্ট হারে ফি নির্ধারণ করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যেই দেশের প্রাইভেট মেডিক‌্যাল প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করে এই বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

দেশের আনাচে-কানাচে প্রাইভেট ক্লিনিক স্থাপিত হচ্ছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সারা দেশে প্রাইভেট ক্লিনিক দিয়ে ছেপে গেছে। এই ক্লিনিকগুলোর মধ‌্যে কোথাও কোথাও মানসম্পন্ন সেবা দিলেও অনেক ক্লিনিকেই মানসম্পন্ন চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে না। এসব ক্লিনিকের ভালোমানের চিকিৎসা সরঞ্জাম নেই। দেশজুড়ে মাশরুমের মতো গজিয়ে ওঠা এ সব মানহীন প্রাইভেট ক্লিনিক বন্ধ করে দেওয়া হবে। শিগগিরই একটি নির্দিষ্ট মানদণ্ড নির্ধারণ করা হবে। এই মানদণ্ড বজায় না থাকলে দায়ী ক্লিনিকগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে।’

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম, বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিক‌্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুবিন খান প্রমুখ।