ঢাকা, বুধবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরিস্থিতি পর্যালোচনায় বিশেষ সভা আজ

মহামারি করোনার প্রকোপ কমে যাওয়ায় স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার পরিস্থিতি হয়েছে কিনা তা পর্যালোচনা করার নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার নির্দেশে পর্যালোচনাসভা ডেকেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

জানা গেছে, স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার পরিস্থিতি নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় আলোচনা হবে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর পরামর্শ ও সার্বিক বিষয় চিন্তা করে স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আজ শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৩টায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে। বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এবং সংশ্নিষ্ট সচিবরা বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলেও শুরুতে এসএসসি ও এইচএসসি শিক্ষার্থীরা এ সুবিধা পাবে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য শ্রেণির ক্লাস-পরীক্ষাও চালু হবে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও করোনা সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে এসএসসি ও এইচএসসির পরই স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার অন্যান্য ক্লাস চালুর সিদ্ধান্ত আসতে পারে। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, আজকের পর্যালোচনা বৈঠক শেষে স্কুল-কলেজ খোলার বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে কওমি মাদ্রাসা বাদে বাকি সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আগামী ২৪ মে খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।