ঢাকা, শুক্রবার, ৮ আগস্ট, ২০২০, ২৪ শ্রাবণ, ১৪২৭

বাংলাদেশ থেকে আরও বেশি পাট নিতে চায় পাকিস্তান

বাংলাদেশ থেকে আরও বিপুল পরিমাণে কাঁচা পাট আমদানির পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে পাকিস্তান।

ভারতের সঙ্গ বাণিজ্য সম্পর্ক স্থগিত হওয়ায় বিপাকে পড়া পাটকলগুলোকে চালু রাখতে এবং বিশ্ব বাজারে পাটজাত পণ্যের চাহিদা পূরণে প্রধানত বাংলাদেশ থেকে পাট আমদানির কৌশল নির্ধারণ করেছে ইমরান খানের পাকিস্তান সরকার।

পাকিস্তানের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম দ্য ডন-এর প্রতিবেদনে দেশটির সরকারের সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সাধারণত পাটজাত পণ্যের রফতানির জন্য বাংলাদেশের পাটের ওপর সবচেয়ে বেশি নির্ভর করতে হয় পাকিস্তানকে। কিন্তু ২০১৫ সাল থেকে পাকিস্তানে পাট রফতানি বন্ধ ঘোষণা করে বাংলাদেশ সরকার।

মূলত নিজেদের দেশে প্ল্যাস্টিক ব্যাগের ব্যবহার কমিয়ে পাটজাত পণ্য ব্যবহারে উৎসাহিত করতেই ওই বছরের নভেম্বরে এমন ঘোষণা দিয়েছিল পাকিস্তান সরকার। ডিসেম্বর মাসেই সেটি বাড়িয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

এদিকে ডন-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারত পাট উৎপাদনে শীর্ষে রয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের প্রায় সব ধরনের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্পর্ক মুখ থুবড়ে পড়েছে। ফলে পাকিস্তান চাইলেও এ মুহূর্তে ভারত থেকে পাট আমদানি করতে পারবে না।

ফলে ইসলামাবাদ ইতোমদ্যে ঢাকা থেকে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিতে পাট আমদানির জন্য তোড়জোড় শুরু করেছে বলেও জনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। কবে নাগাদ এই আমদানি প্রক্রিয়া শুরু হবে সে সম্পর্কে কিছু বলা হয়নি সেখানে।