ঢাকা, বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০২০, ২১ শ্রাবণ, ১৪২৭

এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে চলচ্চিত্র অঙ্গনে শোকের ছায়া

‘ডাক দিয়েছেন দয়াল আমারে’, ‘আমার সারা দেহ খেওগো মাটি’, ‘হায়রে মানুষ রঙ্গিন ফানুস’, ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’ সহ অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন দেশবরেণ্য সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোর। তাকে হারিয়ে শোকে মুহ্যমান চলচ্চিত্র অঙ্গন।

গতকাল সোমবার (৬ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে রাজশাহী মহানগরের মহিষবাথান এলাকায় তার বোন ডা. শিখা বিশ্বাসের ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুর খবর পেয়ে চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতি, পরিচালক সমিতি, শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করা হয়।

চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আশর খসরু বলেন, ‘এন্ড্রু কিশোরের গান শুনে চলচ্চিত্রের প্রতি আগ্রহ হয়। আজ শুধু চলচ্চিত্র নয় দেশ একজন বরেণ্য শিল্পীকে হারালো। আমরা সমিতির পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করছি।’

পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন বলেন, ‌‘এন্ড্র কিশোরের মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। চলচ্চিত্রে তার শূন্যতা অপূরণীয়।’

শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘চলচ্চিত্রে জনপ্রিয় গানের তালিকা দেখেলে এন্ড্রু কিশোর অনেক গান পেয়ে যাবেন। চলচ্চিত্রে আসার আগে তার গান শুনে নিজেকে নায়ক ভেবেছি। আমার মনে হয় অধিকাংশ নির্মাতা তাকে নিয়ে গান করেছেন। তার গলায় যাদু ছিলো। তার চলে যাওয়া চলচ্চিত্রের অপূরণীয় ক্ষতি। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করছি।’

বাংলাদেশ ফিল্ম ক্লাবের সভাপতি অমিত হাসান বলেন, ‘এন্ড্রু দা’র অনেক গানে আমি ঠোঁট মিলিয়েছি। সবগুলো গান সুপার হিট। তার চলে যাওয়ার খবরটা শুনে খুব কষ্ট পেয়েছি। বরেণ্য এই শিল্পীর মৃত্যুতে ফিল্ম ক্লাবের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করছি।’

চলচ্চিত্র নির্মাতা ছটকু আহমেদ তার ফেসবুকে লিখেন— ‘১৯৭৮ সাল ছবির নাম ‘প্রতিজ্ঞা’। বাম্পার হিট ‘মিন্টু আমার নাম’ এর পর আমার লেখা দ্বিতীয় ছবি ‍শুধু না, এই ছবির প্রধান সহকারী পরিচালকও আমি। ছবির পরিচালক খ্যাতিমান এ. জে. মিন্টু। এর গান সুর করতে গেলাম প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক আলম খানের বাসায়। তিনি বললেন একজন নতুন শিল্পী এসেছে রাজশাহী থেকে তাকে এই গানটা গাওয়াতে পারেন। ডাকা হল শিল্পীকে নাম তার এন্ড্রু কিশোর। গান গাইলো- ‘এক চোর যায় চলে’- আর তাকে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

আমাদের ছবিতে অসংখ্য গান করেছে কিশোর। ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘চাঁদের সাথে আমি দেবোনা তুলনা’, ‘ডাক দিয়োছেন দয়াল আমারে’ এইরকম অনেক অনেক গান। আমার প্রায় সব ছবির গান করেছে এন্ড্রু কিশোর। এই কিছুদিন আগে আমার ‘দলিল’ ছবির গান করলো সাবিনা ইয়াসমিনের সাথে, আলাউদ্দিন আলীর সুরে। আমার পরিচালনায় ডিপজল সাহেবের ছবি ‘এক কোটি টাকা’তেও কিশোর গান করলো রিজিয়া পারভিনের সাথে। আর আজ সন্ধায় সে চলে গেলো পরপারে। আমি গভীর শোকাহত। তার আত্মার শান্তি কামনা করছি।’

চলচ্চিত্র নির্মাতা মালেক আফসারী শোক প্রকাশ করে তার ফেসবুকে লিখেন—‘দাদা তোমাকে হারিয়ে অনেক কষ্ট পাচ্ছি। আমার ‘ক্ষতিপূরণ’ ছবিতে ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়ে প্রথমেই আমার পল্টনের বাসায় এসে, বুকে জড়িয়ে ধরেছিলে আমাকে। এখনো সেই বুকের তাপ অনুভব করছি এই বুকে।’