বৃহস্পতিবার, ২রা জুলাই, ২০২০ ইং, ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ বৃহস্পতিবার | ২রা জুলাই, ২০২০ ইং

ফিক্সিং ইস্যুতে পাল্টাপাল্টি মন্তব্য, উত্তাল লঙ্কান ক্রিকেট

শনিবার, ২০ জুন ২০২০ | ৯:০২ পূর্বাহ্ণ | 34Views

ফিক্সিং ইস্যুতে পাল্টাপাল্টি মন্তব্য, উত্তাল লঙ্কান ক্রিকেট

সবদেশ যখন করোনাভাইরাসকে পাশ কাটিয়ে মাঠের ক্রিকেট ফেরানোর চিন্তায় ব্যস্ত, তখন শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট যেন ফিরে গেছে ৯ বছর আগে। দেশটির সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রী মাহিন্দানদা আলুথগামাগে অভিযোগ করেছেন ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালটি ভারতের কাছে বিক্রি করে দিয়েছিল লঙ্কান ক্রিকেট দল।

তার এমন অভিযোগের পর থেকেই উত্তাল লঙ্কান ক্রিকেট। বিশেষ করে দুই কিংবদন্তি ক্রিকেটার কুমার সাঙ্গাকারা এবং মাহেলা জয়াবর্ধনে বেশিই সরব এ অভিযোগের বিরুদ্ধে। তারা দুজনই সাফ জানিয়েছেন, নিজের অভিযোগের পক্ষে যেন যথাযথ প্রমাণ দেখান মাহিন্দানদা।

সাঙ্গা-মাহেলার সরব থাকার বিষয়টিও যেন মনঃপুত হচ্ছে না সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রীর। এবার এ দুজনের দিকে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন তিনি। জানতে চেয়েছেন, কারও নাম না বলার পরেও কেন এ অভিযোগটি সাঙ্গা-মাহেলার গায়ে লাগল?

মাহিন্দানদার অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাহেলা বলেছিলেন, মনে হচ্ছে নির্বাচন সামনে, তাই সার্কাস শুরু হয়ে গেল। তার মন্তব্যের জের ধরে সাঙ্গাকারা বলেন, ‘আইসিসি এবং এন্টি করাপশন ও সিকিউরিটি ইউনিটের কাছে তাকে (সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রী) প্রমাণ হাজির করতে হবে, যাতে করে এই অভিযোগ সম্পূর্ণরুপে তদন্ত করা যায়।’

এ কথার জবাবেই ডেইলি মিররকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মাহিন্দনদা বলেছেন, ‘মাহেলা বলল যে, সার্কাস নাকি শুরু হয়ে গেছে। আমি বুঝতে পারছি না সাঙ্গা ও মাহেলা এটার মধ্যে পড়ছে কেন? আমি তো আমাদের কোন খেলোয়াড়ের নাম বলিনি। প্রায় ত্রিশ মিনিটের সাক্ষাৎকার থেকে মাত্র দুই মিনিট নিয়ে কথা বলছে সবাই। অর্জুনা রানাতুঙ্গেও তো সেই ম্যাচের ফিক্সিং নিয়ে কথা বলেছিলেন।’

মাহিন্দনদার এ মন্তব্যের পর চুপ থাকেননি মাহেলা। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘কেউ যখন বলে আমরা ২০১১ সালের বিশ্বকাপ বিক্রি করে দিয়েছি, তখন অবশ্যই এটা বড় ইস্যু। কেউ মূল একাদশের অংশ না হয়ে কীভাবে ম্যাচ ফিক্সিং করতে পারে? আশা করি নয় বছর পর হলেও আমরা আলোকিত হবো।’

এদিকে সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রীর অভিযোগ বেশ ভালোভাবেই আমলে নিয়েছে শ্রীলঙ্কান সরকার। তার মন্তব্যের জেরে প্রায় ৯ বছর আগের বিশ্বকাপ ফাইনালের সকল ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। লঙ্কান সরকার বর্তমান ক্রীড়ামন্ত্রীকে তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছে। শুক্রবার এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বর্তমান ক্রীড়ামন্ত্রী দুলাস আলাহপেরুমা জানিয়েছেন এ তদন্ত নির্দেশের কথা। প্রতি দুই সপ্তাহ পরপর তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে জানানোর কথাও বলেছেন তিনি।

-Advertisement-
সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেইসবুক পাতা

-Advertisement-
-Advertisement-