আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রের হুমকির শক্তিশালী জবাব পরমাণু অস্ত্র: কিম জং উন

পিয়ংইয়ং-এর পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি যুক্তরাষ্ট্রের হুমকি মোকাবেলায় একটি ‘শক্তিশালী প্রতিরোধ শক্তি’ হিসেবে কাজ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। একই সঙ্গে তার দেশের সামরিক ইস্যুতে ওয়াশিংটনের সমর্থনে আরোপিত জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞাগুলো ব্যর্থ হয়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গে বৈঠকে কিম বলেছেন, পরমাণু কর্মসূচি তার দেশের স্বাধীনতা এবং সার্বভৌমত্বকে সুরক্ষা দিয়েছে। গতকাল রবিবার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এ খবর দিয়েছে।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, গত কয়েক দশকে মার্কিন প্রশাসনগুলো পিয়ংইয়ংয়-এর সঙ্গে অনেক আলোচনা ও চুক্তি সই করা সত্ত্বেও কোরীয় উপদ্বীপের সংকট নিরসন হয়নি।

ট্রাম্প হুমকি দিয়েছিলেন, যুদ্ধই হচ্ছে উত্তর কোরিয়াকে মোকাবেলার একমাত্র উপায়। ট্রাম্পের বক্তব্যের কয়েক ঘন্টা পরই কিম এসব মন্তব্য করেন। উত্তর কোরিয়াকে প্রয়োজনে ‘সম্পূর্ণ ধ্বংস’ করে ফেলারও  হুমকি দিয়ে আসছেন ট্রাম্প।

কিম বৈঠকে আরো বলেন, কোরীয় উপদ্বীপ এবং উত্তর-পূর্ব এশিয়ায় শান্তি ও নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে সুরক্ষা দিতে পিয়ংইয়ং-এর পরমাণু অস্ত্র শক্তিশালী প্রতিরোধ সক্ষমতা হিসেবে কাজ করেছে।

এছাড়া বৈঠকে কিম তার দেশের জাতীয় নীতি ‘বায়োনজিন’ বাস্তবায়নের ওপর জোর দিয়েছেন। এর অর্থ হচ্ছে পরমাণু অস্ত্রের পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নয়ন ঘটানোর এ পরিকল্পণা একই সময়ে এগিয়ে নিতে হবে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে  এ এজেন্ডা সম্পূর্ণ সঠিক হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে।

সূত্র: পার্স টুডে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *